প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছাত্রদল নেতা পলাশ হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন

শরীফা খাতুন শিউলী, খুলনা প্রতিনিধি: যশোর জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি কবির হোসেন পলাশ হত্যা মামলায় ৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ের আরো এক বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এমএ রব হাওলাদার এ  রায় ঘোষনা করেন। রায় ঘোষনাকালে সাজাপ্রাপ্তদের ৬ জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্ত আসামীরা হচ্ছেন- শহরের ষষ্টিতলাপাড়ার তরিকুল ইসলাম, চাঁচড়া রায়পাড়ার প্রিন্স ওরফে বিহরী প্রিন্স, গাড়িখানা রোডের জাহিদুল ইসলাম ওরফে কালা মানিক, ঘোপ বৌ-বাজার এলাকার রবিউল শেখ, ঘোপ নওয়াপাড়া রোডের সজল, টুটুল গাজী, বেজপাড়ার টিবি ক্লিনিক এলাকার ফয়সাল গাজী, রেলগেট পশ্চিমপাড়ার শহিদুল ইসলাম খান ওরফে সাইদুল ও বাঘারপাড়া বহরমপুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম।

মামলায় অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় চাঁচড়া রায়পাড়া এলাকার মাসুদ রানা ওরফে মাসুদ ও পূর্ব বারান্দিপাড়া কবরস্থান রোডের রাজ্জাক ফকিরকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে পলাতক আছেন, শহিদুল ইসলাম খান ওরফে সাইদুল, শহিদুল ইসলাম, প্রিন্স ওরফে বিহরী প্রিন্স, জাহিদুল ইসলাম ওরফে কালা মানিক ও রবিউল শেখ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি অ্যাডভোকেট এনামুল হক জানান, ২০১৩ সালের ৯ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় যশোর শহরের ঈদগাহ মোড়ে সন্ত্রাসীরা পলাশকে গুলি ও বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের বোন ফারহানা ইয়াসমিন ১৩ ডিসেম্বর অজ্ঞাতনামা আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি ডিবি পুলিশ ও পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) দু’দফায় তদন্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ