প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কালকিনিতে পন্যবাহী ট্রলার ডুবির ঘটনায় ব্যবসায়ীর অর্ধলক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

এইচ এম মিলন, (কালকিনি) মাদারীপুর: মাদারীপুরের কালকিনিতে মটোরের পাইপের ধাক্কায় মোঃ রুবেল মজুমদার নামের এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর পন্যবাহী ট্রলার ডুবির ঘটনায় প্রায় অর্ধলক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে করে ওই ব্যাসায়ীর পথে বসে যাওয়ার উপক্রম হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার সকালে এ ট্রলার ডুবির ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী।

সরেজমিন ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, পৌর এলাকার পাঙ্গাশিয়া গ্রামের আবদুর রহিম মজুমদারের ব্যবসায়ী ছেলে রুবেল মজুমদার শিরাজগঞ্জ থেকে নদী পথে একটি ট্রলারযোগে প্রায় অর্ধলক্ষধিক টাকার পানের বরজে ব্যবহৃত ঝাটি কিনে ব্যবসার উদ্দেশ্যে নিজ এলাকা কালকিনিতে রওনা দিয়ে আসেন। পথিমধ্যে উপজেলার পালরদি নদীর জুরগাও নামকস্থানে পৌছলে সরকারীভাবে দেয়া নদীতে থাকা পানিতে ডুবান্ত ব্লোকের ব্যবহৃত একটি মটোরের পাইপে ধাক্কা লেগে ট্রলারের মাঝে ছিদ্র হয়ে সমস্ত মালামাল নিয়ে ডুবে যায়।

এ ব্লোকের ম্যানেজার হিসিবে দায়িত্বে রয়েছেন সিডিখান এলাকার সাহাবুদ্দিন মোল্লা। তবে ক্ষতিগ্রস্তের অভিযোগ ব্লোক ম্যানেজারের দায়িত্ব অবহেলার কারনেই এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। এভাবে অরক্ষিতভাবে নদীর মাঝে ডুবান্ত ব্লোকের পাইপ রাখায় আগামীতেও অনেক দূর্ঘটনা স্বীকার হতে পারেন রুবেলের মত ব্যবসায়ীরা। এনিয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ী সমাজ।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী রুবেল মজুমদার বলেন, নদীর মেধ্যে ডুবন্ত ব্লোকের পাইপে ট্রলার মাঝখানে ছিদ্র হয়ে মালামাল নিয়ে ডুবে যায়। এতে করে চরম ক্ষতিরমুখে পড়েছি আমি।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আকবর ও মোহাম্মদসহ বেশ কয়েকজন বলেন, এভাবে নদীর মধ্যে ব্লোকের পাইপ থাকায় সকল প্রকার পন্যবাহি ট্রলার ও নৌকা ডুবে ক্ষতির মুখে পরতে হচ্ছে আমাদের। আমরা ওই পাইপ উত্তলনের জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানাই। অভিযুক্ত ব্লোক ম্যানেজার সাহাবুদ্দিন মোল্লার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, সরকারের দেয়া মটোরের পাইপ এভাবে রাখা ঠিক হয়নি। বিষয়টি আমি দেখব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ