প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড

আসিফুজ্জামান পৃথিল : বিএনপি চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ২য় দফার কারাদ-গুরুত্বের সঙ্গে উঠে এসেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে। বিভিন্ন দেশের ভিন্ন ভিন্ন মাধ্যম নিজেদের মতো করে প্রকাশ করেছে এ সংবাদ। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স শিরোনাম করেছে, ‘আরো ২ বছর বেশি কারাদ- ভোগ করতে হবে বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে’। ভেতরে বার্তঅসংস্থাটি বলেছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে একটি দুর্নীতি মামলায় ৭ বছরের কারাদ- দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত। পৃথক আরো একটি দূর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজা চলমান থাকায় আরো ২ বছর অতিরিক্ত কারাগারে কাটাতে হবে খালেদাকে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রক্যঅত দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের অনলাইন ভার্সনে শিরোনাম করেছে, ‘সাবেক প্রধানমন্ত্রী জিয়াকে ঘুষ গ্রহণের মামলায় ৭ বছরের কারাদ- দিয়েছে বাংলাদেশের আদালত’। পত্রিকাটি সংবাদের ভেতরে লিখেছে, নিজের প্রয়াত স্বামীর নামের একটি সহায়তা ফান্ডে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগে বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে ৭ বছরের কারাদ- দেওয়া হয়েছে। পত্রিকাটি আরো অভিযোগ করেছে, ডিসেম্বরের আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপিকে দূর্বল করতেই খালেদা জিয়ার ওপর একাধিক মামলা দেওয়া হয়েছে।

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের পর নতুন করে কারাদ-ের সংবাদটি ‘লিড’ করেছিলো জার্মান গণমাধ্যম ডয়েচে ভেলে। তারা শিরোনাম করেছে, ‘বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে নতুন করে কারাদ- দেওয়া হয়েছে’। ভেতরে তারা লিখেছে, বিরোধী দলীয় নেতৃ এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে দুর্নীতি মামলায় নতুন করে ৭ বছরের কারাদ- দেওয়া হয়েছে। তার সমর্থকরা এ রায় মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন এবং এ রায়কে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রনোদিত দাবি করেছেন।

কাতারি টেলিভিন আল জাজিরার অনলাইন ভার্শনে শিরোনাম করা হয়েছে, ‘দুর্নীতির দায়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে ৭ বছরের কারাদ- দিয়েছে বাংলাদেশের আদালত’। সংবাদমাধ্যমটি লিখেছে, ‘বাংলাদেশে কারাগারে আটক বিরোধী দলীয় নেতৃ খালেদা জিয়াকে সোমবার আরো ্টকেটি দুর্নীতি মামলায় ৭ বছরের কারাদ- দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত। সমর্থকরা বলছে বছরের শেষে অনুষ্ঠিতব্য নির্বঅচনকে প্রভাবিত করতেই এই রায়।

পশ্চিমবঙ্গের বিখ্যাত পত্রিকা আনন্দবাজার শিরোনাম করেছে, ‘খালেদা জিয়ার ৭ বছর জেল, ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় একই শাস্তি আরও তিন জনের’। পত্রিকাটি লিখেছে, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বাংলাদেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া-সহ চার জনের সাত বছর কারাদ-র রায় দিয়েছে ঢাকার আদালত। পাশাপাশি ১০ লাখ টাকা (বাংলাদেশি) জরিমানা এবং অনাদায়ে ছ’মাসের অতিরিক্ত কারাদ-র সাজাও ঘোষণা করা হয়েছে। ওই ট্রাস্টের নামে কেনা ৪২ কাঠা জমি রাষ্ট্র্র বাজেয়াপ্ত করতে পারেও বলে নির্দেশে দিয়েছে আদালত। সোমবার দুপুরে এই রায় ঘোষণা করেন ঢাকার বিশেষ আদালতের বিচারক আখতারুজ্জামান।

কারাদ-প্রাপ্ত অন্য তিন জন হলেন, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার তৎকালীন রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন ব্যক্তিগত সচিব বর্তমানে বিআইডব্লিউটিএ-র নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকার ব্যক্তিগত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ