প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আওয়ামী লীগকে ভোট দেয়ার আহ্বান বঙ্গলীগ চেয়ারম্যানের

অনলাইন ডেস্ক : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে ফের ক্ষমতায় আনতে সবার সহযোগিতা চাইলেন বাংলাদেশ জাতীয় বঙ্গলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শওকত হাসান মিঞা। তিনি বলেন, বিশ্ব দরবারে এখন এক বিস্ময়কর নাম বাংলাদেশ। আর এর পেছনে যে নামটি জ্বলজ্বল করছে তিনি হলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

শওকত হাসান বলেন, বাংলা ও বাঙালিকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। তার অক্লান্ত পরিশ্রম, নিষ্ঠা আর সততায় ভর করে সফলতার ঝুঁলিতে যুক্ত হচ্ছে একের পর এক অর্জন। বর্তমানে সর্বাধিক আলোচিত ও সর্বজন গ্রাহ্য একটি বাক্য হচ্ছে- উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, ১৯৯৬ থেকে শেখ হাসিনার উন্নয়নচিত্র তুলে ধরে বঙ্গবন্ধুকন্যার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে ২০১৫ সালে যাত্রা করে ‘বাংলাদেশ জাতীয় বঙ্গলীগ’। উন্নয়নের এ ধারা অব্যহত রাখতে হলে বঙ্গবন্ধুর এগিয়ে নেয়া আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই।

বঙ্গলীগ চেয়ারম্যান বলেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে সহযোগিতা করতে চাই আমরা। সে লক্ষ্যে কাজ করছি। আমরা চাই উন্নয়নের মহাযাত্রা অব্যাহত থাক। বাংলাদেশ এগিয়ে যাক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের পথে।

জাতীয় এই নেতা বলেন, স্বাধীনতার ৪৩ বছর পরও আবার নতুন করে এক নোংরা ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা অব্যহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের রাজনীতিতে ক্রমশঃ মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা তথা স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির উত্থান ঘটছে। অশুভগোষ্ঠী বিভিন্ন কৌশলে তাদের অশুভ নোংরা কর্মকাণ্ডের পরিধিও বাড়াচ্ছে। যার ভয়াল চিহ্ন ২০১৪ সালে জামায়াত-বিএনপির দেয়া অনির্দিষ্টকালের হরতাল-অবরোধের সময়কার কর্মকান্ড।

তিনি আরো বলেন, আমরা দেখেছি কিভাবে একটি স্বাধীন দেশের নাগরিকদের হরতাল-অবরোধের নামে আগুনে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। কিভাবে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডকে পঙ্গু করার ষড়যন্ত্র করা হয়। তাই এমন অবস্থায় কোনো সচেতন নাগরিকই বসে থাকতে পারেন না।

শওকত হাসান মিঞা আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পূর্ণাঙ্গ বিচারের দাবিতে আমরা সোচ্চার। আমরা চাই দ্রুততম সময়ের মধ্যে ফাঁসির রায় হওয়া বাকী অপরাধীদের দেশে এনে দণ্ড কার্যক্রর করা হোক। বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্রগুলো এ বিষয় যেন বন্ধুর মতোই আচরণ করে। সেই কূটনৈতিক চেষ্টা বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধের বিচার অব্যাহত রেখে জেলায় জেলায় চিহ্নিত রাজাকারদের তালিকা ধরে আইনের আওতায় আনতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে মানবতাবিরোধী অপরাধের দণ্ড। বাংলাদেশ জাতীয় বঙ্গলীগ স্বাধীনতা বিরোধীমুক্ত বাংলাদেশ চায়। শেখ হাসিনার হাত ধরে প্রতিষ্ঠা পাবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বঙ্গলীগের মহাসচিব ডা: এসএমএইচ রানা, রা‌হিদ হাসান র‌বিন, মো, আকরামুজ্জামান, মো, ইমরান খান ও জা‌হিদ হাসান জয় প্রমূখ। ডেইলি-বাংলাদেশ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ