প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রতিবন্ধি চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে রিহ্যাবিলিটেশনসহ দুটি বিল পাস

তরিকুল ইসলাম সুমন : সংসদের শেষ অধিবেশনের সমাপনী দিনে সোমবার দুইটি বিল পাস হয়েছে। এরমধ্যে ১৯৭৭ সালে অধ্যাদেশ বলে জারি করা আইনটি রহিত করে প্রথমে পাস হয় ‘কস্ট এন্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টস আইন, ২০১৮। আইনে প্রতারণামূলকভাবে ইনস্টিটিউটের সদস্য দাবি করলে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও তিন লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার এবং প্রতারণার উদ্দেশ্যে ইনস্টিটিউটের নাম ব্যবহার করলে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও দুই লাখ টাকা (সংশোধিত আকারে) জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রাখা হয়েছে।

সোমবার জাতীয় সংসদে স্থিরকৃত আকারে এই বিলটি পাস হয়। বিলটি পাস করার প্রস্তাব করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। এরআগে বিলের ওপর আনীত ডা. রুস্তম আলী ফরাজীর একটি সংশোধনী গ্রহীত হয় অপর সংশোধনী, জনমত যাচাই, বছাই কমিটিতে প্রেরণের প্রস্তাবসমুহ কন্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

এছাড়া প্রতিবন্ধি ব্যক্তি বা প্রতিবন্ধিতার ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিদের চিকিৎসার মাধ্যমে ব্যবহারিক জীবন মান উন্নয়ন ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে ‘বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন আইন ২০১৮ বিল পাস হয়েছে। এই কাউন্সিল চিকিৎসক, টেকনিশিয়ান, টেকনোলজিষ্ট ও পেশাজীদের নিবন্ধন, সনদ প্রদান এবং চিকিৎসার মান নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করবে। বিলটি পাস করার প্রস্তাব করেন, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। এরআগে বিলের ওপর আনীত একটি সংশোধনী গৃহীত হয়। অপর সংশোধনীসহ জনমত যাচাই, বছাই কমিটিতে প্রেরণের প্রস্তাবসমুহ কন্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

আইনে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সভাপতি করে ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল গঠনের বিধান রাখা হয়েছে। বিলে রিহ্যাবিলিটেশন পেশাজীবীরা নামের আগে বা পরে কী ধরনের পদবি, চিহ্ন, ডিগ্রী ব্যবহার করবেন, নিবন্ধিতদের জন্য তা কাউন্সিল নির্ধারণ করে দেবে। কিন্তু অনিবন্ধিত কেউ এসব পদবি, চিহ্ন, ডিগ্রী ব্যবহার করলে কমপক্ষে সাত বছরের কারদন্ড বা দুই লাখ টাকা অর্থদন্ডে বা উভয় দন্ডে দন্ডিত করার বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া নিবন্ধন থাকার পরও বিধি অমান্য করে দেশি-বিদেশী কোন মিথ্যা উপাধি, ভুয়া ডিগ্রী বা চিহ্ন ব্যববহার করলে কমপক্ষে দুই বছরের কারদন্ড বা দুই লাখ টাকা অর্থদন্ডে বা উভয় দন্ডে দন্ডিত করার বিধান রাখা হয়েছে। বিলের তপশিলে রিহ্যাবিলিটেশন প্র্যাকটিশনার, টেকনোলজিষ্ট, টেকনিশিয়ানের শিক্ষাগত যোগ্যতার মান ও বিবরণ এবং ডিগ্রী, ডিপ্লোমা প্রদানকারী ও সাটিফিকেট কোর্স পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানের তালিকা সন্নিবেশিত হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ