প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আশ্রয়ন-২ প্রকল্প, গৃহহীনদের স্বপ্ন পুরণে শেখ হাসিনা

মো: সিরাজুল ইসলাম, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ): মানবতার ”মা” প্রধানমন্ত্রী শেখ হসিনার ১০টি অগ্রাধিকার প্রকল্পের মধ্যে অন্যতম আশ্রয়ন-২ প্রকল্প। যার জমি আছে ঘর নাই, তার জন্য লাখ টাকা খরচ করে ভিটি পাকা চৌচালা টিনের ঘর তৈরি করে দিচ্ছে সরকার। প্রকল্পের আওতায় ইতিমধ্যে দেশের হাজারো পরিবারের নিরাপদ ঘরের স্বপ্ন পুরণ হয়েছে, হচ্ছে।

সেই সঙ্গে স্বাস্থসম্মত একটি করে ল্যাট্ট্র্রিনও দেওয়া হয়েছে। জনবান্ধব সরকারের এ প্রকল্পটি চলমান থাকলে অচিরেই দেশের কোন মানুষই গৃহহীন থাকবে না বলে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জনান।

আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার ১১ ইউনিয়নের ১৯৮ গৃহহীন পরিবার পেয়েছেন একটি করে বসতঘর। সাড়ে ১৬ ফুট বাই সাড়ে ১৫ ফুট আয়তনের প্রতিটি ঘর তৈরী করা হয়েছে টিন, কাঠ, সিমেন্টের খুটি, ইট, বালু ও সিমেন্ট ব্যবহার করে। দেখতেও হয়েছে নান্দনিক।

সরেজমিনে কথা হয় সায়েস্তা ইউনিয়নের গোপালনগর গ্রামের ঘর পাওয়া বৃদ্ধা আনোয়ারার(৬৮) সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘কত সরকারই তো গেলো আইলো। কেউই তো আমাগো মত গরিবের জন্য আগে কিছুই করল না। শেখের বেটি আমাগো কথা চিন্তা কইরা একটা কইরা ঘর বানাইয়া দিলো। শেখ হাসিনা সরকার যেন আবারো দেশ চালাইতে পারে আল্লাহর কাছে এই দোয়াই করি’।

চান্দহর ইউনিয়নের ওয়াইজনগর গ্রামের ঘর পাওয়া দিন মুজুর মহিল উদ্দিন (৫০) জানান, অভাবের কারণে স্ত্রী, সন্তান নিয়ে যুগ যুগ ধরে ভাঙ্গা ঘরে মানবেতর জীবন যাপন করেছি। টাকার অভাবে ভাল একটি ঘর দিতে পারি নাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক লাখ টাকা খরচ করে আমার পরিবারের জন্য একটি ঘর ও ল্যাট্ট্রিন দিয়েছেন। আল্লাহ যেন ওনাকে দীর্ঘ জীবন দান করেন আমার মত গরিবদের সেবা করার জন্য।

প্রায় একই রকম মন্তব্য করেন, বায়রা ইউনিয়নের সানাইল গ্রামের তুলশী রাণী সরকার, সিংগাইর সদর ইউনিয়নের গোবিন্দল গ্রামের জয়গুণ বিবি, জামশা ইউনিয়নের উত্তর জামশা গ্রামের আইজুদ্দিন, চারিগ্রাম ইউনিয়নের উত্তর জাইল্যা গ্রামের কমল রাজ বংশী, জয়মন্টপ ইউনিয়নের রায়দক্ষিণ গ্রামের আঃ জলিল, ধল্লা ইউনিয়নের ভূমদক্ষিণ গ্রামের নুরু বেপারী ও জামির্ত্তা ইউনিয়নের আলীনগর গ্রামের আক্কাস আলীসহ সকলেই।

সিংগাইর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ন-২ প্রকল্পটি গৃহহীন মানুষের মুখে হাসি ফুঁটিয়েছে। ইউনিয়ন ভূমি অফিসের মাধ্যমে তালিকা করে প্রকৃত গৃহহীনদের নিরাপদ বসত ঘর তৈরী করে দেয়া হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত