প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সার্ভার বিকল : ভোটের আগে নির্ভুল এনআইডি পাওয়া নিয়ে শঙ্কা

সাইদ রিপন: সারা দেশে ধর্মঘটের কারণে রবিবার (২৮ অক্টোবর) বন্ধ ছিল গণপরিবহন। শ্রমিকদের ধর্মঘটের মধ্যেও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচনী প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে (ইটিআই) জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) সেবা নিতে আসেন অনেকেই। কিন্তু সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এনআইডি সার্ভার বিকল থাকায় শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে সেবাপ্রার্থীদের।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্রে জানা যায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে নির্বাচনের দিন পর্যন্ত জাতীয় পরিচয়পত্র সেবা সংক্রান্ত সব কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তাই ১ নভেম্বরের মধ্যে সব অনিষ্পন্ন আবেদন নিষ্পত্তি করতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অফিস সময়ের পরও কাজ করার নির্দেশ দেয় ইসি। এ রকম বাস্তবতায় রবিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত জাতীয় পরিচয়পত্রের সার্ভার বিকল থাকায় ইতোমধ্যে অন্তর্ভুক্তি, সংশোধন ও স্থানান্তরের আবেদনকারী ভোটারদের নির্ভুল এনআইডি পাওয়া নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, ইসির ডাটা সেন্টারে ব্যবহার করা সব হার্ডওয়্যার, সার্ভার ও অন্যান্য যন্ত্রপাতির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়াসহ নানা জটিলতার কারণে মাঝেমাঝেই বিকল হয়ে পড়ে এনআইডি সার্ভার। এসব কারণে পুরো সার্ভারটাই একেবারে বিকল হয়ে যাওয়ারও আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। কোনো কারণে সার্ভার বিকল হয়ে গেলে কঠিন হয়ে পড়বে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের ভোট গ্রহণ।

নভেম্বরের শুরুর দিকে হতে পারে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা। ২৮ জানুয়ারির মধ্যে রয়েছে এই জাতীয় নির্বাচন শেষ করার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা।

১ নভেম্বরের মধ্যে সব আবেদন নিষ্পত্তির জন্য অফিস নির্দেশ দিয়েছেন জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের সহকারী পরিচালক (মানব সম্পদ ও প্রশিক্ষণ) মোছা. সিরাজুম মনিরা চৌধুরী।

গত ২৩ অক্টোবর দেওয়া আদেশে বলা হয়, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে নির্বাচনের দিন পর্যন্ত জাতীয় পরিচয়পত্র সেবা সংক্রান্ত সব কার্যক্রম (অন্তর্ভুক্তি, সংশোধন ও স্থানান্তর) বন্ধ থাকবে। তাই সব অঞ্চলের অনিষ্পন্ন নথিগুলো নিষ্পত্তির জন্য অফিস সময়ের পরও অতিরিক্ত কাজ করা প্রয়োজন। আগামী ১ নভেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত অফিস খোলা রেখে ভোটার তালিকার সিডি, স্থানান্তর আবেদন ও জাতীয় পরিচয়পত্রের সংশোধনের আবেদনগুলো নিষ্পন্ন করার জন্য জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ এবং আইডেনটিফিকেশন সিস্টেম ফর এনহ্যান্সিং একসেস টু সার্ভিসেস (আইডিইএ) প্রকল্পের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্দেশ দেওয়া হলো।’

আগামী ২ নভেম্বর প্রত্যেক অঞ্চল থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সংশ্লিষ্ট কাজের একটি সমাপনী প্রতিবেদন প্রস্তুত করে পরিচালকের (অপারেশনস) কাছে দাখিলের করবেন বলেও অফিস আদেশে উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিরাজুম মনিরা চৌধুরী জানান, সার্ভার না থাকায় তফসিল ঘোষণার আগে সব অঞ্চলের অনিষ্পন্ন নথিগুলো নিষ্পন্ন করার ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

তিনি বলেন, ‘ সার্ভার না থাকায় কাজ কম হয়েছে। আমরা আসলে চেষ্টা করব, যতদূর সম্ভব কাজ করা যায়।’

গত ৯ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশনের (ইসি) তথ্য ভাণ্ডার (ডাটা সেন্টার) স্থানান্তর বিষয়ে পরিকল্পনা ও কৌশল গ্রহণ সংক্রান্ত জাতীয় পর্যায়ের গঠিত কমিটির প্রথম সভা হয়। সভা সূত্রে জানা যায়, ডাটা সেন্টারে ব্যবহার করা সব হার্ডওয়্যার, সার্ভার ও অন্যান্য যন্ত্রপাতির (এসি ও ইউপিএস) মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।

শুধু তাই নয়, ইসলামিক ফাউন্ডেশন ভবনে থাকা তথ্য ভাণ্ডারের ওরাকল এক্সাডাটা মেশিনের আটটি ডাটাবেজেরে সার্ভারের মধ্যে তিনটি ক্রিটিক্যাল ওয়ার্নিং (বিপদ সংকেত) দেখাচ্ছে। এ ছাড়া ১৪টি স্টোরেজ সার্ভারের (তথ্য সংরক্ষণের স্থান) মধ্যে নয়টির ড্রাইভ বিকল হয়ে গেছে। এতে ডাটাবেজের কর্মক্ষমতা (পারফরম্যান্স) উল্লেখযোগ্যভাবে কমে গেছে। ফলে জাতীয় পরিচয় সংক্রান্ত বিভিন্ন সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হচ্ছে।

পরিকল্পিতভাবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন ভবনে তথ্য ভাণ্ডার তৈরি না হওয়ায় সেখানে এখন পর্যাপ্ত জায়গার সংকুলান হচ্ছে না। তথ্য ভাণ্ডার স্থাপন করা স্থানে (ফ্লোরে) প্রকল্পের অন্যান্য মালামাল রাখা হয়েছে। তথ্য ভাণ্ডারের কাছাকাছি বিভিন্ন দাহ্য পদার্থ আছে, যেগুলো অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ বলেও উল্লেখ করা হয় সভায়।

সভা সূত্রে আরও জানা যায়, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয় ভোটারদের তথ্য সংরক্ষণের জন্য ডিসি ও ডিআরএস তথ্য ভাণ্ডার পরিচালনা করছে। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলে (বিসিসি) থাকা তথ্য ভাণ্ডারটি ডিআরএস হিসেবে এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশন ভবনে অবস্থিত তথ্য ভাণ্ডারটি ডিসি হিসেবে কাজ করছে। কিন্তু বিসিসিতে থাকা ডিআরএস তথ্য ভাণ্ডারের (ডাটা সেন্টার) জায়গা পূর্ণ (স্টোরেজ ফুল) হওয়ায় এখন ডিসি ও ডিআরএসের মধ্যে কোনো রিয়েল টাইম সিনক্রোনাইজেশন বা সঠিক সময়ে স্বয়ংক্রিয় যোগাযোগ হচ্ছে না।

বিশেষজ্ঞরা দ্রুত সার্ভার মেরামতের পরামর্শ দেন এই সভায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ