প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধামরাইয়ে দুই শতাধিক পোশাক শ্রমিক অসুস্থ্য, হাসপাতালে ভর্তি

রাসেল হোসেন, ধামরাই: ঢাকার ধামরাইয়ে একটি তৈরি পোশাক কারখানার দুই শতাধিক শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। অসুস্থ শ্রমিকদের দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতাল, ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার বিকেলে ধামরাইয়ের কচমচ এলাকায় স্নোটেক্স আউটারওয়্যার লিমিটেড’ কারখানায় এঘটনা ঘটে। কি কারণে অসুস্থ্য হয়ে পরেছে তাৎক্ষনিক কারখানার কেউ জানতে পারেনি। কারখানায় কাজ করে প্রায় আট হাজার শ্রমিক।

আহতরা হলেন, সোহেল, রাসেল, বাদল, শিউলী, সুমি, তাসলিমা, শিউলি বেগম, আঁচল, ইসমত আরা, নুরজাহান বেগম, লাবনী, বিলকিছ, রিয়া আক্তার, রাসেদা, লাকী বেগম, রেজিনা, পারুল, রেহেনা, ইতি, শেরিকা, শাহনাজ খাতুন, শান্তা, কনিকা, রিতা, চায়না, মনিকাসহ অনেকেই ।

হঠা করে কিছু শ্রমিক মাথা ঘুরে ফ্লোরে পরে যায়, আবার কেউ বমি করতে করতে দুর্বল হয়ে পড়ে যায়। পরে অসুস্থ্য শ্রমিকদের দ্রুত বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। এর মধ্যে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫৬ জন, সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৬৯ গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালে ৮৮ জন ভর্তি করা হয় ।

এর মধ্যে আশি পারছেন শ্রমিক প্রাথমিক চিকিসা নিয়ে চলে গেছে বলে জানিয়েছে হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জানান, দুপুরের পর পর্যায়ক্রমে প্রায় দুই শতাধিক শ্রমিক অসুস্থ্য হয়ে পরে। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনার পর কর্তৃপক্ষ কারখানাটি ছুটি ঘোষনা করেছে। তিনি বলেন, অসুস্থ্য শ্রমিকরা অনেকেই প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছে। অনেকেই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। তাদের স্যালান দিয়ে রাখা হয়েছে।

ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের পরিদর্শক সাহেব আলী জানান, বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে খবর পেয়ে অসুস্থ্য শতাধিক শ্রমিককে ফায়ার সার্ভিসের এাম্বুলেন্সে করে ইসলামপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করি।

ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিবার পকিল্পনা কর্মকর্তা ডা: মো: ফজলুল হক বলেন, বিকাল পৌনে ৫টার দিকে হাসপাতালে ৫৪জন অসুস্থ্য শ্রমিক আসে। এরমধ্যে বেশ কয়েকজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে যায়। ১৪জনের অবস্থা বেশী খারাপ হওয়ায় কারখানা কর্তৃপক্ষ তাদের রেফার্ড করে অন্যত্র নিয়ে যায়। সর্বশেষ ৪জন ভর্তি ছিল তারাও প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাসায় চলে গেছেন বলে জানান। কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে সঠিক ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে পরীক্ষা নিরীক্ষার পর বলা যাবে কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।

স্নোটেক্স আউটারওয়্যার লিমিটেডের সহকারী পরিচালক মোঃ জয়দুল হোসেন বলেন, দুপুরে খাবার খেয়ে শ্রমিকরা সবায় কাজে যোগদেন কিন্তু হঠাৎ করে তিন তলার সি ফ্লোরের বেশ কিছু নারী শ্রমিক বমি করে অসুস্থ্য হয়ে পরে। তাদেরকে উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার পরই আমরা কারখানা ছুটি ঘোষণা করি।আর সাথে সাথে আমরা একটা তদন্ত টিম ঘঠন করি।তদন্ত টিমের রিপোর্ট অনুযায়ি আমরা জানতে পেরেছি দুপুরের খাবারের কোন সমস্যা ছিল না । সমস্যার কারণ তারা জানিয়েছে আমাদের এসএমলির মাঠে ঘাসের উপর ইউরিয়া সার প্রয়োগ করার পর বৃষ্টি হয়। বৃষ্টির পর এসএমলির মাঠ থেকে গ্যাস পাম হয়ে অসুস্থ্য হওয়ার ঘটনা ঘটে বলে জানান। তিন তলার সি ফ্লোরের এসএমলি মাঠের কাছে হওয়ায় তারা অসুস্থ্য হয়। অসুস্থ্য হওয়া শ্রমিকরা সবাই সুস্থ্য আছে বলে জানান। এসময় তিনি আরও জানান কারখানার পক্ষ থেকে অসুস্থ্য সব শ্রমিকের উন্নত চিকিৎসার ব্যাবস্থ্যা করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ