প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতের আমন্ত্রণে ট্রাম্পের ‘না’

আমাদের সময় : প্রজাতন্ত্র দিবসে অতিথি হওয়ার জন্য যে আমন্ত্রণ পাঠিয়েছে ভারত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট যথাসম্ভব তাতে ‘না’ করে দিয়েছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প ২৬ জানুয়ারির ওই আয়োজনে অংশ নিচ্ছেন না বলে গতকাল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতের গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে।
ট্রাম্প প্রশাসন এ সফর বাতিলের কারণ হিসেবে একই সময়ে অভ্যন্তরীণ জরুরি কর্মসূচির কথা বলেছে। ওই সময়ে ট্রাম্পের সিনেটে বার্ষিক রাষ্ট্রীয় ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু ভারত মনে করছে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র কেনা এবং ইরান থেকে তেল আমদানিই ট্রাম্পের না করার নেপথ্যের কারণ।

২০১৫ সালে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে যোগ দিয়েছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। আর বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দুই অর্থনীতির মধ্যে বেশ কয়েকটি ইস্যুতে মতবিরোধের মধ্যে এবারের কর্মসূচি বাতিল করলেন ট্রাম্প।
২০১৬ সালে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ। ২০১৪ সালে উপস্থিত ছিলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। এ কর্মসূচিতে যোগ দেওয়া অন্যান্য বিশ্ব নেতার মধ্যে রয়েছেন নিকোলাস সারকোজি, ভ্লাদিমির পুতিন, নেলসন ম্যান্ডেলা, জন মেজর, মোহাম্মদ খাতামি এবং জ্যাক শিরাক।

গত এপ্রিলে ভারতের তরফে ট্রাম্পকে এ কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণ পাঠানো হয়। আগস্টে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স ওই আমন্ত্রণ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেন।

সম্প্রতি রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ মিসাইল ব্যবস্থা ক্রয় চুক্তির বিষয়ে ভারতকে সতর্ক করে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। চলতি মাসের শুরুতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ভারত সফরের সময়ে পাঁচটি এস-৪০০ মিসাইল ব্যবস্থা কেনার চুক্তি সই হয়। এ ছাড়া ইরানের কাছ থেকে তেল কেনা নিয়েও ভারতকে সতর্ক করে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞার হুমকি সত্ত্বেও ইরান থেকে তেল কেনার সিদ্ধান্ত অব্যাহত রেখেছে ভারত।

প্রজাতন্ত্র দিবসে অতিথি হওয়ার জন্য যে আমন্ত্রণ পাঠিয়েছে ভারত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট যথাসম্ভব তাতে ‘না’ করে দিয়েছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প ২৬ জানুয়ারির ওই আয়োজনে অংশ নিচ্ছেন না বলে গতকাল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতের গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে।
ট্রাম্প প্রশাসন এ সফর বাতিলের কারণ হিসেবে একই সময়ে অভ্যন্তরীণ জরুরি কর্মসূচির কথা বলেছে। ওই সময়ে ট্রাম্পের সিনেটে বার্ষিক রাষ্ট্রীয় ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু ভারত মনে করছে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র কেনা এবং ইরান থেকে তেল আমদানিই ট্রাম্পের না করার নেপথ্যের কারণ।

২০১৫ সালে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে যোগ দিয়েছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। আর বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দুই অর্থনীতির মধ্যে বেশ কয়েকটি ইস্যুতে মতবিরোধের মধ্যে এবারের কর্মসূচি বাতিল করলেন ট্রাম্প।
২০১৬ সালে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ। ২০১৪ সালে উপস্থিত ছিলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। এ কর্মসূচিতে যোগ দেওয়া অন্যান্য বিশ্ব নেতার মধ্যে রয়েছেন নিকোলাস সারকোজি, ভ্লাদিমির পুতিন, নেলসন ম্যান্ডেলা, জন মেজর, মোহাম্মদ খাতামি এবং জ্যাক শিরাক।

গত এপ্রিলে ভারতের তরফে ট্রাম্পকে এ কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণ পাঠানো হয়। আগস্টে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স ওই আমন্ত্রণ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেন।
সম্প্রতি রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ মিসাইল ব্যবস্থা ক্রয় চুক্তির বিষয়ে ভারতকে সতর্ক করে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। চলতি মাসের শুরুতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ভারত সফরের সময়ে পাঁচটি এস-৪০০ মিসাইল ব্যবস্থা কেনার চুক্তি সই হয়। এ ছাড়া ইরানের কাছ থেকে তেল কেনা নিয়েও ভারতকে সতর্ক করে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞার হুমকি সত্ত্বেও ইরান থেকে তেল কেনার সিদ্ধান্ত অব্যাহত রেখেছে ভারত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ