প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কারিগরি শিক্ষা বোর্ড বিল পাস

তরিকুল ইসলাম সুমন : কারিগরী শিক্ষার মাধ্যমে দেশে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে প্রচলিত অন্যান্য শিক্ষা বোর্ডের সমমর্যাদা দিয়ে বাংলাদেশ কারিগরী শিক্ষা বোর্ড বিল পাস করেছে জাতীয় সংসদ। রোববার রাতে বিলটি সংসদে কন্ঠভোটে পাস হয়। বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন শিক্ষমন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ। এরআগে বিলের ওপর আনিত পীর ফজলুর রহমানের একটি সংশোধনী গৃহীত হয়। অপর সংশোধনী, যাচাই ও বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও জনমত যাচাইয়ের প্রস্তাব কন্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। গত ২৪ অক্টোবর সম্পূরক কর্মসূচিতে বিলটি উত্থাপন করা হয়।

বিলে সাব এসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার/ মধ্যম সারির ব্যবস্থাপক সমতুল্য ডিপ্লোমা প্রকৌশল সনদ প্রদানসহ শ্রম বাজারের চাহিদার আলোকে উচ্চ দক্ষ (সুপারভাইজার), দক্ষ, আধা দক্ষ, মৌলিক দক্ষ, মৌলিক কর্মী ৫টি কর্মশ্রেণীতে বিভক্ত করে সনদ দেওয়ার বিধান রাখা হয়েছে। এজন্য বিলে ১৪টি ক্রমিকে কারিগরি শিক্ষা কোর্সের বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরা হয়। এরমধ্যে রয়েছে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিংসহ এগ্রিকালচার, ফিসারিজ, ফরেষ্ট্রি, নেভাল (ইলেট্রিক্যালসহ অন্যান্য), আর্মি (টেলিকমিউনিক্যাশনসহ অন্যান্য), মেডিক্যাল টেকনোলজি, লাইভস্টক ও টুরিজম ডিপ্লোমা সনদসহ আধুনিক জীবন যাপনের সাথে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাকার্যক্রমের ডিপ্লোমা। এছাড়া জাতীয় প্রাক-বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ শীর্ষক ২টি সনদ দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়, দেশের কারিগরী শিক্ষার স্বীকৃতি, পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণকল্পে বিদ্যমান দি টেকনিক্যাল এডুকেশন এ্যাক্ট ১৯৬৭ রহিতক্রমে বাংলাদেশ কারিগরী শিক্ষা বোর্ড আইন, ২০১৮ প্রণয়ন হয়। এস এস সি (ভোকেশনাল), দাখিল (ভকেশনাল), বি.এম. এবং ডিপ্লোমা পর্যায়ের সকল শিক্ষা, গবেষণা ও প্রশিক্ষণ সম্প্রসারণ এবং দেশে বিদেশে প্রযুক্তিখাকে নতু উদ্যোগতা সৃষ্টি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে বিলটি আনা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ