প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এবার নারী শিক্ষায় প্রচারণায় রোকেয়া প্রাচী

আবু সুফিয়ান রতন : বিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেত্রী ও কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া প্রাচী ফেনীর সোনাগাজীতে শিক্ষার্থীদের আদর্শ নাগরিক হওয়ার শপথ বাক্য পাঠ করান। নারী শিক্ষার গুরুত্ব তুলে প্রচারণা চালাচ্ছেন তার নির্বাচনী আসন সোনাগাজী উপজেলার তাকিয়া বাজার। রবিবার দুপুরে ওসমানিয়া হাই স্কুলের শিক্ষার্থীদের সাথে নারী শিক্ষার গুরুত্ব ও সচেতনতা বৃদ্ধি জন্য ছাত্রীদের সাথে সময় কাটান। নারী শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা সংক্রান্ত একটি ডকুমেন্টারী প্রদর্শন করেন।

এসময় তিনি ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বাল্য বিয়েকে না বলতে হবে। কারণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পড়া লেখার খরচ দিচ্ছে। তাহলে কেন পড়া লেখা বন্ধ করে বাল্য বিয়ে দেয়া হবে। বাংলাদেশের নারীরা এখন পিছিয়ে নেই। সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে সব জায়গায় নারীদের ভালো অবস্থান রয়েছে।

একই সময় পাইকপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় মনোযাগী হওয়ার আহবান জানান। তিনি বাল্য বিবাহ, মাদক রুখে দেয়ার শপথ বাক্য পাঠ করান। এসময় ওসমানীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন, সাংস্কৃতিক কর্মী রাজিব সরওয়ারসহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বখতারমুন্সি, তাকিয়া বাজার ও কুঠিরহাটে নৌকার অভিনব ডিজিটাল প্রচারণায় রোকেয়া প্রাচী আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে গত দশ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উদ্যোগ তুলে ধরে নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনাকে আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে জয়ী করার আহ্বান জানান।

অদম্য প্রতিবাদী নাদিয়ার পাশে দাঁড়ালেন রোকেয়া প্রাচী
বাল্যবিবাহ রুখে দেওয়া অদম্য প্রতিবাদী কিশোরী নাদিয়া সুলতানা সামিয়ার পড়ালেখার ব্যয়ভার বহনের দায়িত্ব নিলেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী। রোববার ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নের তাকিয়া বাজার সংলগ্ন বাল্য বিবাহ রুখে দেওয়া কিশোরী নাহিদার গ্রামের বাড়িতে যান কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া প্রাচী।
তিনি ওই কিশোরীর কাছে বাল্য বিবাহ রুখে দেওয়ার গল্প শোনেন ও সাহসিকতার জন্য তাকে ধন্যবাদ জানান। পরে তিনি তাৎক্ষণিক কিশোরী নাহিদার পড়ালেখার ব্যয়ভার বহন করার ঘোষণা দেন। এছাড়াও তিনি স্থানীয় ওসমানীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা বলে আগামী জানুয়ারী মাসে অস্টম শ্রেণিতে নাহিদাকে ভর্তি করার বিষয়ে নিশ্চিত করেন।

উল্লেখ, গত ১৩ অক্টোবর কিশোরী নাহিদা বিয়ের পিঁড়ি থেকে পালিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে ঠেকিয়ে দেয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত