প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাষ্ট্রপতির রাজনৈতিক সহযোদ্ধার জানাজা অনুষ্ঠিত

আজহারু হক, ময়মনসিংহ: রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ অ্যাডভোকেট’র রাজনৈতিক সহযোদ্ধা প্রাক্তন তুর্কি ছাত্রনেতা ও ময়মনসিংহ জেলা আ.লীগের সাবেক উপদেষ্টা মাহমুদ হোসেন জজের জানাজা রোববার সকাল ১০টায় পাঁচ ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। পরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দক্ষিণ হারিনা গ্রামের পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়।

তিনি গতকাল শনিবার কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

কিশোরগঞ্জের হাওর-বাওরের ভাটির শারদুল রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ কিশোরগঞ্জ গুরুদয়াল কলেজে ১৯৬৩-৬৪ সালের ছাত্র সংসদের ভিপি ছিলেন ও জিএস ছিলেন ময়মনসিংহ জেলা আ’লীগের উপদেষ্টা গফরগাঁওয়ের সন্তান তুর্কি ছাত্রনেতা মাহমুদ হোসেন জজ।

কিশোরগঞ্জ ষ্টেডিয়াম মাঠে তৎকালীন পাকিস্থান সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী ফজলুল কাদের চৌধুরীর আগমনে ভিপি আব্দুল হামিদের নেতৃত্বে প্রতিবাদ প্রতিরোধসহ অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠে কিশোরগঞ্জের জনপদ। এ ঘটনায় মন্ত্রীর গাড়ি ও মঞ্চ পুড়িয়ে দেয় তৎসময়ের ছাত্র সংসদ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা। সে সময় ছাত্রলীগের পক্ষে ৬ দফার আন্দোলন, ৬৯’এর গণঅভ্যুত্থান, ৭০’ এর নির্বাচনসহ লড়াই সংগ্রামে অংশ নিয়েছিলেন মাহমুদ হোসেন জজ।

আজীবন সংগ্রামী এ নেতার জানাজায় অংশ নেন স্থানীয় তরুণ এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বাদল, পৌর মেয়র এস এম ইকবাল হোসেন সুমন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ডা. শামীম রহমানসহ ভিবিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরা। জানাজায় ছিল সর্বস্তরের মানুষের ঢল। মৃত্যুকালে তিনি তিন ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ