প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে হামলায় বাসদের নিন্দা ও প্রতিবাদ

রফিক আহমেদ : বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে সন্ত্রাসী দুর্বৃত্তদের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন। রোববার এক বিবৃতিতে তিনি এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

খালেকুজ্জামান বলেন, ডা. জাফরউল্লাহ চৌধুরী একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় যুদ্ধক্ষেত্রে বাংলাদেশের যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসার জন্য যে কয়জন চিকিৎসক ফিল্ড হাসপাতাল করেছিলেন তিনি তাদের অন্যতম। টিভি টকশোতে সেনা প্রধান সম্পর্কে তার একটি ভুল বক্তব্যকে কেন্দ্র কওে যে বির্তকের সৃষ্টি হয়েছিল তা নিয়ে তিনি ভুল স্বীকার করে দুঃখপ্রকাশ করেছেন। তার পরেও যদি কোন পক্ষ তাতে সন্তুষ্ট না হয়ে থাকেন তাহলে তারা দেশের প্রচলিত আইনের আশ্রয় নিতে পারেন। আদালত স্বাক্ষীপ্রমাণে দোষী সাব্যস্ত হলে তাকে শাস্তিও দিতে পারে।

তিনি বলেন, বক্তব্যবের ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক ফাঁয়দা হাসিলের জন্য সরকার ও সরকারিদল যেভাবে একের পর এক বক্তব্য, বিবৃতি, মাছ চুরি-ফল চুরিরর মামলা দিয়ে আসছে এবং গণস্বাস্থ্যের মতো একটি প্রতিষ্ঠানে হামলা, গণবিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হোস্টেলে হামলা, র‌্যাবের গুলিতে পঙ্গু ঝালকাঠির লিমনকে মেরে হাত ভেঙে দেয়ার মতো সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটিয়ে চলছে তাতে বিরোধী মতকে দমন করার সরকারের হীন স্বৈরাচারী আচরণের নির্লজ্জ বহি:প্রকাশ ঘটেছে।

তিনি আরও বলেন, সরকার জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে স্বৈরতান্ত্রিক কর্তৃত্ববাদী শাসনে লুটপাটতন্ত্র-পরিবারতন্ত্র কায়েম করে গণবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সরকারের পায়ের নীচে যখন মাটি নাই তখন হামলা, মামলা, গায়েবী মামলা, গ্রেফতার-নির্যাতন করে ক্ষমতায় টিকে থাকা ও পুনরায় ক্ষমতায় আসতে চাইছে। কিন্তু ইতিহাস বলে নির্যাতন চালিয়ে কোন সরকার বেশিদিন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। ফলে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে দমন-পীড়নের পথ পরিহার করে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান। একই সাথে সরকারের দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে সকল বাম-গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।