Skip to main content

‌‌‌‌‌‌‌‌‌একশ বছরের উন্নয়ন পরিকল্পনা এবং দ্বিতীয় স্যাটলোইট উৎক্ষেপনের প্রস্তুতি চলছে

মাহফুজ নান্টু : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী একশ বছরে দেশের উন্নয়ন ও দ্বিতীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করছেন। পরিকল্পনাগুলো ইতিমধ্যে একনেকের সভায় অনুমোদনও হয়েছে। দেশ পরিচালনামূলক এমন একশ বছরের ডেলটা প্ল্যান সারা বিশ্বে নেদারল্যান্ডের পরে বাংলাদেশই গ্রহণ করেছে। আজ কুমিল্লা ক্যালেক্টরেট স্কুল এ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর নবীণ বরণ ও নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করতে এসে প্রধান অতিথীর বক্তব্য প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ মো:তোফাজ্জল হোসেন মিয়া এ কথা বলেন। এ সময় তিনি আরো বলেন, কুমিল্লার ঐতিহ্য ইতিহাস অনেক সমৃদ্ধ।এখানে বছরজুড়েই নিজস্ব উদ্যেগে চলে দেশয়ি সংস্কৃতি চর্চা। যা শিক্ষা সংস্কৃতির পাদপীট এই কুমিল্লার ইতিহাস ঐতিহ্যর গভীরতার প্রতীক হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করে। এমন সরকারী বেসরকারী পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া এ ধরণের ব্যক্তি বা সাংগঠনিক সাংস্কৃতিক কর্মযজ্ঞ দেশের শিক্ষা সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করছে। এ সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, তোমরা এমন এক সমৃদ্ধ বাংলাদেশের নাগরিক, যেখানে বছরের প্রথমে নতুন বইয়ের ঘ্রান নিয়ে লেখাপড়া শুরু করতে পারো। যা এক সময় স্বপ্নের চেয়ে বেশী কিছু মনে হতো। তথ্য-প্রযুক্তি সম্পন্ন এক উন্নত বাংলাদেশ গড়তে তোমাদেরকে লেখাপড়ায় অনেক মনোযোগী হতে হবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে একজন চীনা দার্শনিকের একটি উক্তিটি বলেন, যদি এক বছরের জন্য কোথাও বিনিয়োগ করো তাহলে মাঠে ধান রোপণ করো। আর যদি শিক্ষাক্ষেত্রে বিনোয়োগ করো তাহলে অনাদীকাল লাভবান হবে। আর এ জন্য তোমরা যারা শিক্ষার্থী রয়েছো তারা মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হবে। আর যতদিন তোমরা তোমাদের ভেতরে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালন করবে ততদিন কেউ আমাদের উন্নয়নের পথে বাঁধা হয়ে দাড়াতে পারবেনা। কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী ও যুগ্ম সচিব সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, স্থানীয় সরকার বিভাগ কুমিল্লা অঞ্চলের উপপরিচালক মো:আজিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন, সোনার বাংলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ আবু ছালেক মো:সেলিম রেজা সৌরভ, কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর মো:জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী। অনুষ্ঠানের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন কালেক্টরেট স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নার্গিস খান, জেলা স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রাশেদা আক্তার ফয়জুন্নেচ্ছা, স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রোখসানা ফেরদৌস মজুমদার, কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সালাম মিয়াসহ জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকতাবৃন্দ।