প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অস্তিত্ব হুমকিতে মৌলভীবাজারের বৃহত্তম হাইল হাওর

স্মৃতি খানম: অবাধে মাছ চাষ ও বসতবাড়ি গড়ে উঠায় মৌলভীবাজারের বৃহত্তম হাইল হাওরের অস্তিত্ব হুমকিতে পড়েছে। অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই হাওরের জমি দখল করছে প্রভাবশালীরা। দিনের পর দিন এ অবস্থা চলতে থাকলে অচিরেই এ হাওরের আবেদন হারিয়ে যাবে, শঙ্কা স্থানীয়দের। অবশ্য দখলকৃত জমি উদ্ধারে আশ্বাস দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

দেশের মৎস্য ভার, বন্যপশু-পাখি ও জীববৈচিত্রের জন্য পরিচিত মৌলভীবাজরের হাইল হাওর। কিন্তু সময়ের ব্যবধানে দিনের পর দিন অস্তিত্ব হুমকির মুখে হাওরটি। অভিযোগ, স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে প্রভাবশালীরা হাওরের জমি দখল করে অবাধে মাছ চাষ করছে। গড়ে তোলা হচ্ছে বসতবাড়িও। এরইমধ্যে অবৈধভাবে দখল করা হয়েছে হাওরের প্রায় ৫০ শতাংশ জমি।

স্থানীয়রা জানান, বাচ্চা ফুটানোর জায়গা নেই। প্রভাবশালী পিসারি করে মাছ মারতেছে, আগে এতো পিসারি ছিল না। এখন পিসারিতে ভরে গেছে। এখানে বাড়ি-ঘর হয়ে গেছে, এখন হাওর খুঁজে পাওয়া যায় না।

অবাধে প্রভাবশালীদের স্থাপনা ও মাছ চাষ থেকে বিরত রাখতে না পারলে অচিরেই হাইল হাওরের আবেদন হারিয়ে যাবার আশঙ্কা করছে হাওর ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ।

মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল হাইল-হাওর বড়গাঙ্গিনা সম্পদ ব্যবস্থাপনা সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মিন্নাত আলী বলেন, হাওয়ের আয়তন কমতেছে, প্রাকৃতিক সম্পদ কমতেছে। সেই সাথে একটা সময়ে দেখা যাবে, হাওয়ের প্রাকৃতিক সম্পদ বিলুপ্ত হয়ে গেছে। যদিও পিসারি কন্টিনিউ চলে।

তবে অবৈধ দখল ঠেকাতে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান মৌলভীবাজারের অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক আশরাফুর রহমান। তিনি বলেন, যদি হাওর দখল হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে এটি দখল মুক্ত করার একটি প্রক্রিয়া রয়েছে। যেটি সারা বছরই জেলা প্রশাসন করে থাকে।

মৌলভীবাজার সদর ও শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ১৪হাজার হেক্টর জমিতে ১৩১টি বিল নিয়ে গঠিত হাইল হাওর।সূত্র: সময় টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ