প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ড. অনুপম সেন বললেন, ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে অস্বস্তি নেই আ.লীগে, অস্বস্তিতে আছে মনে করেন মহিউদ্দিন আহমদ

আশিক রহমান : আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য ড. অনুপম সেন বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে অস্বস্তি নেই আওয়ামী লীগে। অস্বস্তিতে থাকার কোনো কারণও নেই। কেননা, আদর্শহীন কিছু মানুষ ঐক্যফন্ট করেছেন। যুদ্ধাপরাধী জামায়াত ও গ্রেনেড হামলাকারীদের সঙ্গে ঐক্য মানুষ গ্রহণ করেনি। এখন যারা বিএনপির সঙ্গে জোট বেধেছেন তারা আদর্শবিচ্যুত মানুষ। আদর্শহীন ও ব্যক্তিস্বার্থের জোট বা ঐক্য কখনো টিকেনি। বিএনপি-জামায়াত সংশ্লিষ্ট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট টিকবে না।

অনুপম সেন আরও বলেন, সভা-সমাবেশ করতে কাউকে বাধা দিচ্ছে না সরকার। বাধা দিলে ঐক্যফ্রন্ট সমাবেশ করে কীভাবে? যখন সরকার নিরাপত্তাহীনতার প্রশ্ন দেখেছে, সেখানে সভা-সমাবেশ সীমিত করেছে। নিরাপত্তার প্রশ্ন দেখা দিলে তা সংরক্ষণ করা সরকারের দায়িত্ব। জনগণের নিরাপত্তা সবার আগে। তিনি আরও বলেন, মাহমুদুর রহমান মান্না কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নন। তার বিষয়ে আর বেশি কিছু বলতে চাই না। ড. কামাল হোসেন রাজনীতি করলেও নীতিতে কখনোই ঠিক ছিলেন না। স্বার্থকেই প্রাধান্য দিয়েছেন সবসময়।

ড. অনুপম সেনের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করে গবেষক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক মহিউদ্দিন আহমদ বলেছেন, আমার মনে হচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আওয়ামী লীগের জন্য অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তা না হলে আওয়ামী লীগ নেতারা ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের সম্পর্কে এত নেতিবাচক মন্তব্য করতেন না। বিএনপির সঙ্গে ড. কামাল হোসেনের নামটি জড়িয়ে যাওয়ায় তাদের শক্তি অনেক বেড়ে গেছে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

এ কারণেই বেশ আক্রমণাত্মকভাবে কামাল হোসেন ও ঐকফ্রন্টের সমালোচনা করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সভা-সমাবেশের ব্যাপারে বর্তমান সরকার অনেকদিন ধরেই বাধা-নিষেধের মধ্যে রেখেছে বিরোধীদলগুলোকে। কোথাও সমাবেশ করতে দিচ্ছে না, যখন অনুমতি দেওয়া হয় তখন দেখা যায় জায়গা পরিবর্তন করে দেওয়া হয়। তবে তফসিল ঘোষণার পর নির্বাচন কমিশন একটা জোর পাবে। তখন হয়তো সভা-সমাবেশের ওপর বাধা-নিষেধ কমে আসবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ