Skip to main content

ফেনসিডিল ও টাকাসহ আটক জেলারের ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন

অনলাইন ডেস্ক : নগদ ৪৪ লাখ ৪৩ হাজার টাকা ও ১২ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক হওয়া চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার সোহেল রানা বিশ্বাসকে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেছে পুলিশ। আগামী সোমবার এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে শুনানি হবে। শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম থেকে ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস থেকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার সোহেল রানা বিশ্বাসকে আটক করে ভৈরব রেল পুলিশ। আজ শনিবার ভৈরব রেলওয়ে থানায় তার বিরুদ্ধে দু’টি মামলা দায়ের করা হয়। ভৈরব রেল পুলিশের এএসআই মোহাম্মদ হোসেন জানান, শনিবার দায়ের করা দুই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে সোহেল রানা বিশ্বাসকে কিশোরগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়। বিচারক আবদুন নূর আগামী সোমবার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে সোহেল রানা বিশ্বাসকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। ভৈরব রেলওয়ে থানা সূত্র জানায়, মাদক ও মানি লন্ডারিং আইনে মামলা দু’টি দায়ের করেছেন ভৈরব রেলওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক আশরাফ উদ্দিন ভূঁইয়া। এর মধ্যে মাদক মামলাটি তদন্ত করবে পুলিশ আর মানি লন্ডারিং আইনে দায়ের হওয়া মামলাটি তদন্ত করবে দুর্নীতি দমন কমিশন। উল্লেখ্য, শুক্রবার সোহেল রানা বিশ্বাস ট্রেনে করে চট্টগ্রাম থেকে ময়মনসিংহ যাচ্ছিলেন। ট্রেনটি দুপুর পৌনে ১টার দিকে ভৈরব স্টেশনে পৌঁছালে রেলওয়ে পুলিশ একটি কেবিনে তল্লাশি চালায়। এসময় তার লাগেজে থাকা ১২ বোতল ফেনসিডিল, নগদ ৪৪ লাখ ৪৫ হাজার টাকা পাওয়া যায়। পরে তাকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে তার নিজের নামে এককোটি ৩০ লাখ টাকার ৩টি চেক ও এককোটি টাকার দু’টি এফডিআর এবং তার স্ত্রী হোসনে আরা পপির নামে এককোটি টাকার দু’টি এফডিআর ও তার শ্যালক রকিবুল হাসানের নামে ৫০ লাখ টাকার একটি এফডিআর জব্দ করে পুলিশ। সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন

অন্যান্য সংবাদ