প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১৮ হত্যাকারিকে ফেরত চায় তুরস্ক
খাসোগজির মৃত্যু মধ্যপ্রাচ্য অস্থিতিশীল করছে: মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী

নূর মাজিদ, প্রত্যাশা প্রমিতি : ভিন্নমতাবলম্বী সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজি হত্যায় মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস। শনিবার বাহরাইনের বার্ষিক মানামা ডায়ালগ সিকিউরিটি কনফারেন্সে তিনি এমন কথা বলেন। ম্যাটিস বলেন, খাসোগজি হত্যা স¤পূর্ণ মধ্যপ্রাচ্যের নিরাপত্তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রনীতির দৃষ্টিভঙ্গিকে প্রশ্নের সম্মুখীন করেছে। এই বিষয়ে দেশটির ঘনিষ্ঠ মিত্র সৌদি আরব দায়ী হলেও খাসোগজি হত্যায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনার আশ্বাস দেন জিম ম্যাটিস। তিনি বলেন, মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে খাসোগজির মৃত্যু আন্তর্জাতিক মহলকে ব্যথিত করেছে । যেকোনো রাষ্ট্রের ব্যর্থতা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতাকে শুধু ক্ষুণœই করে না বরং আন্তর্জাতিক আইনকেও ব্যাহত করে। এসময় তিনি খাসোগজি হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহদের মার্কিন ভিসা বাতিলের বিষয়টি জানান। খাসোগজি হত্যায় অন্যতম প্রধান সন্দেহভাজন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। তিনিই এই হত্যাকা-ের নির্দেশ দিয়েছিলেন বলে আন্তর্জাতিক মহলের অভিযোগ। তবে বিন সালমানের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে কোন বাধা আরোপ করেনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। গত মঙ্গলবার ২১ জন সৌদি কর্মকর্তার যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এই বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র সৌদি আরবের নিজস্ব বিচার ও তদন্তে আস্থা রাখে বলে ইতোপূর্বে জানিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রা¤প। তবে শুক্রবার তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান জানিয়েছেন, খাসোগজির হত্যাকারীদের তার দেশেই বিচার করতে হবে। এরপরেই গতকাল শনিবার তুর্কি কতৃপক্ষ সৌদি আরবের কাছে খাসোগজি হত্যা মিশনে জড়িত ১৮ জন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে তাদের হাতে তুলে দেয়ার আনুষ্ঠানিক অনুরোধ করেছেন। দেশটির সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে তুর্কি দৈনিক ইয়েনি সাফাক জানায়, পূর্বপরিকল্পিত হত্যা, পাশবিক নির্যাতন এবং হত্যার অভিযোগ এনে তুর্কি আইন বিভাগের কর্মকর্তারা রিয়াদের কাছে সন্দেহভাজন খুনিদের হস্তান্তরের আবেদন করেছেন। ইতোপূর্বে এই ১৮ জন সৌদি কর্মকর্তাকে খাসোগজি খুনের দায়ে গ্রেফতার করে রিয়াদ। তবে তুরস্কের আশংকা খুনিদের দ্রুত শাস্তি দিয়ে হুকুমের আসামি যুবরাজ বিন সালমানকে বাঁচাতে চাইছে সৌদি আরব। এরদোগান তুর্কি পার্লামেন্টে দেয়া তার মঙ্গলবারের ভাষণে বলেছেন, যার নির্দেশে খাসোগজিকে হত্যা করা হয়েছে তুর্কি কতৃপক্ষ তাকেও বিচারের আওতায় আনতে চায়। রয়টার্স, দ্য গার্ডিয়ান, বিবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ