Skip to main content

জাতীয় নির্বাচনে সীমিত পরিসরে ইভিএম ব্যবহার করা হবে: চট্টগ্রামে ইসি সচিব

মো. শহিদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম: আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে সীমিত পরিসরে শহর এলাকায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে। তবে আরপিও (গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ) সংশোধন হলে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে বলে জানিয়েনে, নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ইভিএম প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। কমিশন সচিব বলেন, ‘ইভিএম ভোট দেওয়ার প্রক্রিয়া সবচেয়ে সহজ। এর মাধ্যমে নির্বাচনে ভোট কারচুপি ও কেন্দ্র দখলের কোন সুযোগ নেই। একজন ভোটার মাত্র ১৪ মিনিটে সেকেন্ড তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবে। তিনি আরও বলেন, সাধারণ ভোটারদেরকে নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে অভ্যস্ত করতে হবে। দেশ-বিদেশে ইভিএম নিয়ে নানা আলোচনা চলছে। ২০১০ সালে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রথম বার একটি কেন্দ্রে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ হয়েছে। ওই কেন্দ্রে কোন রকম ঝামেলা ছাড়া সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়। নিবার্চন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, নতুন ও আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে ইভিএম মেশিন তৈরি হয়েছে। নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে স্মার্ট কার্ড, ভোটার কার্ড ও ভোটারের উপস্থিতি ছাড়া ভোট দেওয়ার সুযোগ নেই। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার শংকর রঞ্জন সাহা, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার নূরে আলম মিনা। অনুষ্ঠানে ইভিএম সম্পর্কিত বক্তব্য দেন এসএম আসাদুজ্জামান। চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন অফিস এ ইভিএম মেলার আয়োজন করেন।