প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গত ১০ বছরে সারাদেশে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে: প্রধানমন্ত্রী

জান্নাতুল ফেরদৌস: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের প্রতিটি মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছে সরকার। গত ১০ বছরে সারাদেশে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। শনিবার দুপুরে পটুয়াখালীর পায়রার ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য স্বপ্নের ঠিকানা পুনর্বাসন প্রকল্পসহ ২১টি প্রকল্পের উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

দক্ষিণাঞ্চল সব সময় অবহেলিত ছিল মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘৮১ সালে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে দেশে ফেরার পর আমি টুঙ্গীপাড়া থেকে স্পিডবোটে করে বরগুনা পর্যন্ত ভিজিট করেছি। এ অঞ্চলে মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে তাদের দুঃখ দুর্দশা দেখেছি। অথচ সে সময়কার শাসকরা এ অঞ্চলের মানুষের উন্নয়নের সম্ভাবনা চোখে দেখেনি।’

দক্ষিণাঞ্চলে মানুষের জীবনমানের উন্নয়নের জন্য এ এলাকায় এলএমজি টার্মিনাল, মাল্টিপারপাস সাইক্লোন সেন্টার নির্মাণ করার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী।তিনি বলেন, ‘এ অঞ্চলে মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বহুপরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। দ্বিতীয় পরমাণু বিদ্যুত কেন্দ্র এ অঞ্চলে নির্মাণ করার জন্য ফিজিবিলিটি স্টাডি করা হচ্ছে। এটা আমরা করে দেব।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধন করা অন্য প্রকল্পগুলো হচ্ছে- পটুয়াখালী সরকারি কলেজের পাঁচতলা গার্লস হোস্টেল ও শিক্ষা কাম-পরীক্ষা হল নির্মাণ কাজ, ইসহাক মডেল ডিগ্রি কলেজ, মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি কলেজ, আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন কলেজ, হাজী আক্কেল আলী হাওলাদার কলেজে চারতলা শিক্ষা ভবনের নির্মাণ কাজ, কুয়াকাটা খানাবাদ কলেজ, সুবিদ খালী ডিগ্রি কলেজ ও দুমকি জনতা ডিগ্রি কলেজের চারতলা শিক্ষা ভবন নির্মাণ কাজ, দুমকি উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়ন, মির্জাগঞ্জ ৩৩/১১ কেভি বিদ্যুৎ স্টেশন, পায়রাবন্দর শেখ হাসিনা সড়ক এবং পায়রাবন্দর সার্ভিস জেটি, মসজিদ, অফিসার গেস্ট হাউস ও স্টাফ ডরমেটরি।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পটুয়াখালী সরকারি কলেজের পাঁচতলা বিজ্ঞান ভবন, শ্রীমান্ত নদীতে ৯৬ মিটার সেতু, পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া ও মির্জাগঞ্জ উপজেলায় কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (তৃতীয় পর্ব) প্রকল্পের আওতায় দুটি কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং পায়রাবন্দর প্রকল্পের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের পুনর্বাসন এলাকার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

এর আগে সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে কলাপাড়ার ধানখালী ইউনিয়নের লোন্দাগ্রামে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টার অবতরণ করে।

বিকেলে বরগুনার তালতলীতে জনসভায় বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার সফর উপলক্ষে সাজসাজ রব পুরো এলাকায়। এরইমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে স্থানীয় প্রশাসন। পুরো শহর ছেয়ে গেছে বিভিন্ন ব্যানার ফেস্টুনে। সফরকে নির্বিঘ্ন করতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা-ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ