প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির জন্য শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন

অনলাইন ডেস্ক : উন্নয়নের প্রধান অন্তরায় জঙ্গীবাদ ও দূর্নীতি প্রতিরোধে নৈতিক মূল্যবোধ চর্চার উপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন এক কর্মশালার বক্তারা। তারা বলেন, নৈতিকভাবে সমৃদ্ধ একজন মানুষ কখনো হত্যা, সন্ত্রাস ও দুর্নীতিতে জড়াতে পারে না। আর তাই বাংলাদেশ সরকার তার চলমান উন্নয়নমূলক কর্মসূচীকে অবিরাম রাখার জন্য দুর্নীতি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তারা।

শুক্রবার (২৬) রাজধানীর হোটেল লা-মেরিডিয়ানে শুরু হওয়া ‘টেকসই উন্নয়নে নৈতিক মূল্যবোধ’ শীর্ষক দু’দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বক্তারা এসব কথা বলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. চে মুসা চে ওমর, ভারতের আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইসমাঈল, শিলং বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. সুমনা পাল প্রমুখ। নিবন্ধ উপস্থাপন করেন এশিয়ান ইউনিভার্সিটির ভিসি ড. আবুল হাসান মোহাম্মদ সাদেক। সভাপতিত্ব করেন এইউবি ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ জাফার সাদেক।

উদ্বোধনের পর অতিথিরা উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। বক্তব্যে তারা বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে যে উন্নয়নের ধারা সূচিত হয়েছে তা অব্যাহত রাখতে হলে শিক্ষাব্যবস্থায় নৈতিক মূল্যবোধ সৃষ্টির উপর গুরুত্ব দিতে হবে। ভারতীয় গবেষক ড. মুহাম্মদ ইসমাঈল বলেন, প্রতিটি পরিবারকে নৈতিকতা শিক্ষার বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এব্যাপারে তিনি উপমহাদেশের শিক্ষিত ও সচেতন মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মালয়েশিয়ার ড. চে ওমর বিশ্বে দূর্নীতি ও সন্ত্রাসের তালিকায় মুসলিম দেশগুলোর নাম শীর্ষে থাকার পরও মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের মত দেশ এই কলঙ্ক হতে নিজেদের মুক্ত করার অব্যাহত প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানান। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ইতিমধ্যেই সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ