প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডিএসসিসিতে একসাথে পদন্নোতি ও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ 

সুজিৎ নন্দী : দীর্ঘ তিন বছর পরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) পদন্নোতি হয়েছে। তত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর একটি পদে তিনজনকে পদোন্নতি এবং চলতি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে একজন সহকারি প্রকৌশলীকে নির্বাহী প্রকৌশলী পদে পদোন্নতি এবং বজ্রব্যবস্থাপনার দুইজন উদ্ধোতন কর্মকর্তাকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, ডিএসসিসির জনবল কাঠামোর অনুমোদন দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে রয়েছে। একই সঙ্গে দক্ষ কর্মকর্তার অভাবে তারা কাজ চালিয়ে নেবে। এটি কোন স্থায়ী বিষয় নয়। জনবল কাঠামোর অনুমোদন পেলে এ প্রশাসনিক অনিয়ম হয় না।

এ ব্যাপারে ডিএসসিসির সচিব শাহাবুদ্দিন খান এ প্রতিবেদককে বলেন, অবসরে যাওয়া কর্মকর্তারা খুবই অভিজ্ঞ হওয়ায় এবং দায়িত্ব দেয়ার মতো সংস্থায় তেমন দক্ষ লোক না থাকায় কাজ চালিয়ে নিতে এসব করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, তবে সংস্থার প্রয়োজন ও বিকল্প না থাকায় এসব করতে হয়েছে।

তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী করা হয়েছে অঞ্চল-১ এর নির্বাহী মুন্সী আবুল হাসেম, অঞ্চল-৩ এর নির্বাহী খাইরুল বাকের, অঞ্চল-৫ এর  বোরহান আহম্মেদ করা হয়েছে। অন্যদিকে অঞ্চল-৫ সহকারি প্রকৌশলী মিটুন কুমার শীলকে নির্বাহী প্রকৌশলী এবং প্লানিং এ্যান্ড ডিজাইন বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী প্রেমধন রুদ্রপালকে পরিবেশ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী করা হয়েছে।

গতবছর খন্দকার মিল্লাতুল ইসলাম পিআরএলে (অবসরোত্তর ছুটি) কাজ চালিয়ে যাওয়ার অফিস আদেশ জারি করা হয়। পিআরএল শেষ হওয়ার আগেই অফিস আদেশ জারি করে বলা হয়- যতদিন ওইপদে অন্য কাউকে দায়িত্ব দেয়া না হবে ততদিন পর্যন্ত তিনি একই পদে দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া ৩০ আগস্ট আরেক অফিস আদেশে ডিএসসিসির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আবু সালেহ মো. মাঈন উদ্দিনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তার পিআরএলে কাজ চালিয়ে নেয়ার অনুমতি দেয়া হয়েছে। একাধিক সূত্র জানায়, এই পদোন্নতি থেকে অনেকেই বঞ্চিত হচ্ছেন। শীর্ষ ব্যক্তিদের সম্পর্কে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভুল ধারণার সৃষ্টি হচ্ছে। চরম অসন্তোষ দেখা দিতে পারে।

সম্পাদনা : আলম ভাই

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ