প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তারেক রহমান দেশে আসবেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য : দুদু

আহমেদ ইসমাম: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু জানিয়েছেন, তারেক রহমান দেশে আসবেন প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি হওয়ার জন্য। আজ দুপুরে ঢাকা রিপোর্টর্স ইউনিটিরর সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক আলোচনায় তিনি বলেন, তারেক রহমান এসে দেশের দায়িত্ব কাধে তুলে নিবেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী বন্ধু দল আলোচনা সভার আয়োজন করে।

সাবেক ছাত্র দলের নেতা দুদু প্রধানমন্ত্রীর কথার উল্লেখ করে বলেন, আপনি কি দেশে ফিরিয়ে আনবেন? আমরাই তারেক রহমানকে সসম্মানে দেশে ফিরিয়ে আনব। তার আগে আপনি পদত্যাগ করেন, ভাল একটা নির্বাচন দেন, পার্লামেন্ট ভেংগে দেন। এই পার্লামেন্ট যতক্ষণ থাকবে দেশে সমস্যা ততক্ষণ থাকবে। তাই আপনি পদত্যাগ করে দেশে একটি স্বাভাবিক পরিস্থিতি নিয়ে আসুন। এরপর সবাই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার মত পরিবেশ বজায় থাকবে।

প্রধান আলোচক হিসেবে বিএনপির এই নেতা বলেন, ডিজিটাল আইন হচ্ছে সংবিধানবিরোধী, সংবিধান হচ্ছে মানুষের চিন্তা,বাক, সংঠন, সভা সমাবেশ করার অধিকার নিশ্চিত করেছে। প্রশাসনসহ সকলকে সবাবদিহিতার মাঝে নিয়ে এসেছে এই সরকার। ডিজিটাল আইন সব কিছুকে কেরে নিয়েছে। ডিজিটাল আইনের কারণে মুক্তিযুদ্ধ অপমানিত হয়েছে। যারা শহীদ হয়েছেন তাদেরকে অপমানিত করা হয়েছে। ডিজিটাল আইন মানুষের লেখা, বলা ও চিন্তার অধিকার কেরে নিয়েছে। তার প্রথম প্রমাণ হচ্ছে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। তিনি যে কথা বলেছেন সেটা থানা পর্যন্ত যেত। থানায় ডেকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু তার সাথে যে আচরন করা হয়েছে সেটিকে ডিজিটাল আইনের সাথে তুলনা করা যেতে পারে।  এটা আমাদের জন্য লজ্জা জনক।

ঐক্যফ্রন্ট  নিয়ে তিনি বলেন, ড. জাফরুল্লার তৈরি হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের ময়দানে। তাকেও চুরির মামলা দেওয়া হয়েছে। তার একটি মাত্র কারণ তিনি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এ কাজ করছেন।  এ সব করে আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় আসবে এটা যদি তারা ভাবে তবে বুঝব তারা বোকার রাজ্যে বাস করছে।

অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন দলটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শরিফ মোস্তফাজামান লিটু। এ ছাড়াও আরো উপস্তিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন এর উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব,বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ড.ওবাইদু ইসলাম, বিএনপির শিশু বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ সহ বিভিন্ন সংঠনের নেতা কর্মীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ