প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুপুরে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে শেষ ওয়ানডে

এল আর বাদল : ইতোমধ্যে টানা দুই ম্যাচ জিতে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সিরিজ জিতে নেয় বাংলাদেশ। এবার মাশরাফিবাহিনীর লক্ষ্য তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ জয় করে সফরকারীদের বাংলাওয়াশ করার। সেই স্বপ্ন নিয়েই টাইগাররা বৃহস্পতিবার নিজেদের ঝালাই করে নিয়েছে। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে গতকাল স্টিভ রোডস এর অধীনে কঠোর অনুশীলনই করেছেন লাল-সবুজের সেনারা। শেষ ম্যাচে অধিনায়ক মাশরাফি থেকে শুরু করে দলের সবাই যেনো জিম্বাবুয়েকে বাংলাওয়াশ করতে মরিয়া। শুক্রবার দুপুর আড়াইটায় তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে পরস্পরের মোকাবিলা করবে।

সিরিজ হারালেও জিম্বাবুয়ে এবার বাংলাওয়াশ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে যার পরনাই লড়বে। দলনায়ক হেমিলটন মাসাকাদজা বলেছেন, আগের দুই ম্যাচ তো আমরা হেরেছি ইমরুল কায়েসের কাছে। নিয়মরক্ষার শেষ ম্যাচটি জিতে হারের ব্যবধান কমাতে চাই। বাংলাদেশ দলের প্রশংসা করে মাসাকাদজা বলেন, সাকিব আর তামিমের মতো হাই প্রোফাইলের দুই ক্রিকেটার ছাড়াই বাংলাদেশ অনেক শক্তিশালী। বাংলাদেশ এখন যে কোনো দলের বিরুদ্ধে জেতার ক্ষমতা রাখে।

মাশরাফিও বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে অনেক কথাই বলেছেন। সেখানে বার বার যেনো জিম্বাবুয়েকে ধবলধোলাইয়ের (বাংলাওয়াশ) প্রসঙ্গটি উঠে আসছে। তিনি বলেছেন, জিম্বাবুয়েকে আগেই আমরা বাংলাওয়াশ করেছি। এবারও তার ব্যাত্যয় ঘটবে না। আমার দলের প্রতিটি সদস্য মনস্থির করেই মাঠে নামবে।

নতুন খেলোয়াড় সম্পর্কে মাশরাফি বলেন, রাব্বি এসেছিল কারণ সাকিব নেই, একজন লেফট আর্ম স্পিনারের প্রয়োজন সেভাবে চিন্তা করা হয়েছে। তবে সাইফুদ্দিনেরটি একেবারে নিশ্চিত ছিল যে একটি অলরাউন্ডার খোঁজা। আর একমাত্র সেই আছে সাম্প্রতিক সময়ে। ‘এইচপি’ বা ঢাকা লিগ যেখানেই বলেন সে ভাল করছিল। সুতরাং তার আগমনটা আমার মতে আবশ্যক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ