প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শেরপুরে খ্রিষ্টানদের তীর্থ উৎসব উপলক্ষে পাহাড়ের সর্বত্র উৎসবের আমেজ

তপু হারুন, শেরপুর : শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার ভারতের মেঘালয় প্রদেশের সীমান্তবর্তী বারমারী সাধু লিওর খ্রিষ্টান ধর্মপল্লীতে আগামী ২৫ ও ২৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার দু’দিন ব্যাপি তীর্থ উৎসব উপলক্ষে সর্বত্র উৎসবের আমেজ বইছে। শুধু এই পাহাড়ি এলাকাতেই নয় বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের মাঝে এখন উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে।

শেরপুরের সীমান্তবর্তী গারো পাহাড় এলাকার বারোমারী খ্রিষ্টান মিশনে তীর্থ উৎসবকে ঘিরে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। মিশনের বিভিন্ন স্থানের রাস্তা সংস্কার, আগাছা পরিস্কার, ধোয়া মোছা, প্যান্ডেল, প্রবেশ পথের গেইট তৈরিসহ বিভিন্ন প্রস্তুতিতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে মিশনের লোকজন।

দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত ভক্তদের জন্য নির্মাণ করা হচ্ছে প্যান্ডেল ও রাত্রি যাপনের বিশেষ ব্যবস্থা। এছাড়া খাওয়া-দাওয়ার জন্য স্বল্প মূল্যে খাওয়া-দাওয়ার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে তীর্থ কমিটি। এছাড়া বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ ও ল্যাট্রিনের এর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। বিশেষ করে পাশ্ববর্তী ভারতের মেঘালয় প্রদেশ থেকে অসংখ্য গারো খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীরাও এ তীর্থে আসবেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

বারোমারী খ্রিষ্টান মিশনের ফাদার মনিন্দ্র এম চিরান জানায়, আমাদের তীর্থের সকল প্রস্ততি সম্পন্ন শেষ হয়েছে। এখন শুধু দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে তীর্থ যাত্রীরা আসবেন এবং তীর্থের সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন। এবার আশা করছি প্রায় ৩০ থেকে ৪০ হাজার তীর্থযাত্রী আসবেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. বিল্লাল হোসেন জানায়, তীর্থকে ঘিরে নিরাপত্তার জন্য র্যাব, বিজিবি’র টহলের পাশাপাশি আমাদের পুলিশের ২ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এসময় সার্বক্ষণিক ৩৮০ জন পুলিশ সদস্য নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া সাদা পোষাকে নিরাপত্তা কর্মীর পাশাপাশি সার্বক্ষণিক সিসি টিভি ক্যামেরা দ্বারাও নিরাপত্তা ব্যবস্থা মনিটরিং করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত