প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ট্রাম্পের ব্যক্তিগত ফোনকলে আড়ি পাতছে রুশ ও চীনা গোয়েন্দারা

নূর মাজিদ : রুশ ও চীনা গুপ্তচরেরা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ব্যক্তিগত ফোনকলে নিয়মিত আড়ি পাতছে। যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা বিভাগ এবং হোয়াইট হাউজের একাধিক সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে গত বুধবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমস এমন তথ্য জানিয়েছে। পত্রিকাটি বলছে, যখনই মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার পুরোনো বন্ধুদের তার ব্যবহৃত একটি আইফোন দিয়ে কল করে তাদের সঙ্গে খোশালাপে মশগুল থাকেন তখনই বিদেশি এসব গুপ্তচরেরা তা অত্যাধুনিক ও সংবেদনশীল যন্ত্রের সাহায্যে তাতে আড়ি পাতেন। অধিকাংশ সময়ই ট্রা¤প তার পুরোনো বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেয়ার পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি কেমন করছেন সেই বিষয়েও আলাপ করেন। এই ধরনের আলোচনা শুনে বিদেশি গোয়েন্দারা মার্কিন প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ সব তথ্য জানতে পারে। এসব তথ্য রাশিয়া ও চীনকে ট্রাম্প প্রশাসনের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে। কারণ, দেশটির গোয়েন্দারা মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত চিন্তা সম্পর্কে আগাম পূর্বাভাষ পেয়ে যায়।

ইতোপূর্বে, ট্রাম্পের একাধিক উপদেষ্টা ও সহযোগী প্রেসিডেন্টকে তার ব্যক্তিগত ফোন লাইন নিরাপদ নয় বলে সতর্কও করেছেন। এমনকি তারা এটাও বলেছেন, রুশ গুপ্তচরেরা আপনার ব্যক্তিগত ফোনালাপে নিয়মিত আড়ি পাতছেন।এই বিষয়ে তাদের ক্রমাগত অনুরোধের কারণেই বেশকিছু দিন ধরে ট্রা¤প তার ব্যক্তিগত ফোনালাপের কাজে হোয়াইট হাউজের নিরাপদ ল্যান্ডলাইন ব্যবহার করছেন। তবে ডোনাল্ড ট্রা¤প তার ব্যক্তিগত আইফোন ব্যবহার স¤পূর্ণরূপে বন্ধ করার পক্ষে নন। এই বিষয়ে হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তাদের একমাত্র আশা প্রেসিডেন্ট তার ব্যক্তিগত আইফোন ব্যবহার করে ফোনালাপের সময় গোপন তথ্য প্রকাশের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করবেন। তবে ইতোমধ্যেই মার্কিন প্রেসিডেন্টের খামখেয়ালি আচরণের কারণে এই বিষয়ে নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না হোয়াইট হাউজ কর্মকর্তারা।

এই বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সাবেক ও বর্তমান মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তা নিউইয়র্ক টাইমসকে জানান, ট্রাম্প ব্যক্তিগত আইফোনে কি ধরনের আলোচনা করেন তা জানতে তারাও সেখানে আড়ি পেতেছেন। এটা তারা প্রেসিডেন্টকে অসম্মান করতে নয় বরং জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই করেছেন। কিন্তু, ট্রাম্পের ব্যক্তিগত ফোনালাপ শোনার পর গোয়েন্দা কর্মকর্তারা এখন গভীর হতাশা প্রকাশ করছেন। তাদের বক্তব্য, মার্কিন প্রেসিডেন্ট খোশালাপের মাঝে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এমন সব তথ্য বিরোধী দেশের গুপ্তচরদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন। নিউইয়র্ক টাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ