প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দলীয় নেতা ও এমপিদের শুক্রবার বিশেষ বার্তা দেবেন শেখ হাসিনা

আবুল বাশার নূরু : আওয়ামী লীগের যৌথসভা শুক্রবার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন। দলটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি, উপদেষ্ঠা পরিষদ, দলীয় সংসদ সদস্য, ঢাকাসহ সকল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, সকল জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ও সহযোগী কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সভায় আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে যৌর্থসভায় কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত দিতে পারেন শেখ হাসিনা। এছাড়া কেউ যেন বিদ্রোহী প্রার্থী না হয় সে ব্যাপারে কড়া সর্তক বার্তা দেবেন আওয়ামী লীগ প্রধান। যাকেই নৌকা প্রতীক এবং মহাজোটের প্রার্থী করা হবে তার পক্ষ্যে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। দল বা জোট প্রার্থীর বিরোধীতা করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না- এমন হুশিয়ারি দেবেন শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা এই প্রতিবেদককে বলেন, সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক কর্মসূচির মাধ্যমে মাঠ দখল রাখার কৌশল, নির্বাচনী ইশতেহার চূড়ান্ত করা, নির্বাচনকালীন সরকার এবং নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নের বিষয় গুরুত্ব¡পূর্ণ সিদ্ধান্ত দেবেন শেখ হাসিনা। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব বিষয় নিয়েই আলোচনা ও সিদ্ধান্ত হবে সভাতে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ প্রসঙ্গে বলেন, আজকের সভায় অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কী কী বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার, একাদশ নির্বাচনে আমাদের ইশতেহার চূড়ান্ত করা, নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক কর্মসূচি, নির্বাচনী প্রচারণাসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে। আজ দলের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পিযুষ ভট্টচার্য্য বলেন, অনেক নেতাদের নিয়ে সভা করে গুরুত্বপূর্ণ কোনো সিদ্ধান্ত হয়ত নেওয়া হবে না। দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা নেতা ও এমপিদের সর্তকবার্তাই দেবেন। বিশেষ করে আসন্ন নির্বাচনে কেউ যাতে দলীয় সিদ্ধাতের বাইরে না যায় সেই বিষয়ে সর্তক করবেন তিনি। বিরোধীদলের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা, আওয়ামী লীগের মধ্যে কেউ যাতে বিভ্রান্তি না সৃষ্টি করতে পারে, এসব বিষয়েও সর্তক করবেন শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাককে প্রধান করে একটি ইশতেহার উপকমিটি গঠন করা হয়েছে। গত ১০ অক্টোবর এই উপকমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ইশতেহার উপকমিটিতে থাকা এক সদস্য জানান, আওয়ামী লীগের ঘোষণাপত্র, ২০০৮ ও ২০১৪ সালের নির্বাচনী ইশতেহার এবং সদ্য ঘোষিত সরকারের ডেল্টা প্ল্যান পর্যালোচনা করে তৈরি করা হচ্ছে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের ইশতেহার।

ইশতেহার বিষয়ে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমরা ইশতেহারের খসড়া তৈরি করেছি। দলের যৌথ সভায় এটি উত্থাপন করা হবে। তারপর সেখাইেন চূূড়ান্ত করা হবে। ইশতেহারে কী কী থাকছে এমন প্রশ্নের জবাবে ড. রাজ্জাক বলেন, কর্মসংস্থান, প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানো, সমুদ্র সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও ব্যবহার, বিনিয়োগ, সুশাসন, জঙ্গি ও মাদকমুক্ত সমাজগড়ার বিষয়গুলো প্রাধান্য পাবে আগামী সংসদ নির্বাচনের ইশতেহারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ