Skip to main content

প্রতিবন্ধী আজিবর এখনও পাননি বয়স্ক ভাতা কার্ড

রতন কুমার রায় (ডোমার) নীলফামারী: নীলফামারীর ডোমারে একখানা বয়স্ক কিংবা প্রতিবন্ধীভাতা কার্ডের জন্য ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে প্রতিবন্ধী আজিবর রহমান। ৮ মাস আগে আবেদন করেও অদ্যাবধি জোটেনি ভাতা ভোগীর কার্ড। ডোমার উপজেলার পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ৬৫বছরের বৃদ্ধ প্রতিবন্ধী আজিবর রহমান পেশায় একজন দিনমজুর। স্ত্রী, ৩ মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে তার সংসার।এরমধ্যে দুই মেয়ের বিয়ে দিয়েছে। ছোট মেয়ে মানুষের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে এবং একমাত্র ছেলে মটুকপুর স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। আজিবর রহমানের একটি চোঁখ নষ্ট। তার প্রতিবন্ধী কার্ড রয়েছে।কিন্তু তার প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীর তালিকায় নাম নেই। প্রতিবন্ধী ভাতা পাওয়ার জন্য তিনি ৮মাস আগে সমাজসেবা অধিদপ্তরে বয়স্ক ভাতা মঞ্জুরীর ফরমে আবেদন করেন। ওই আবেদনপত্রে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সুপারিশ রয়েছে। কিন্তু আজও তার ভাগ্যে জোটেনি ভাতা ভোগীর কার্ড। বৃদ্ধ আজিবর রহমান জানান, ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার এবং সরকারী অফিসে প্রতি সপ্তাহে একবার করে খোজ খবর নেই। হবে হবে বলে ৮মাস পেরিয়ে গেলো ভাতাভোগীর কার্ড হলোনা।অথচ এলাকায় জায়গা জমি রয়েছে এমন সচ্ছল ব্যাক্তিদের কার্ড হয়েছে। আমি টাকা দিতে পারিনি বলে আমার কার্ড হয়নি। বয়স্ক কিংবা প্রতিবন্ধীভাতা কার্ড পাওয়ার জন্য তিনি করুন আকুতি জানান। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ জানান, আজিবরের আবেদনে সাক্ষর করে দেয়া হয়েছে। আগামীতে সে বয়স্ক ভাতা কার্ড পাবে।