Skip to main content

অসামাজিক কাজে লিপ্ত পুলিশ সদস্য আটক মুচলেকায় মুক্তি

শেখ ফরিদ আহমেদ ময়না, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: আশাশুনিতে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকাকালে হাতেনাতে ধরা পড়লো এক পুলিশ সদস্য। গ্রামবাসী তাকে ধরে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে সোপর্দ করে। পরে মুচলেকা দিয়ে রক্ষা পেয়ে যান পুলিশ কনস্টেবল কামরুজ্জামান (কং নং ৬৮৫৮)। বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের চেউটিয়া গ্রামে। মুচলেকার সুত্র ধরে আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন জানান, কনস্টেবল কামরুজ্জামান একই ইউনিয়নের কাপসন্ডা গ্রামের মহিউদ্দিনের মোড়লের ছেলে। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের সদস্য কামরুজ্জামান এক তরুনিকে নিয়ে আশাশুনির আনুলিয়া গ্রামে তার নানা বাড়িতে অবস্থান করছিল। সন্ধ্যায় কোন এক সময় কামরুজ্জামান মেয়েটির সাথে অসামাজিক কাজে লিপ্ত হলে প্রতিবেশিরা তাদের দুইজনকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। রাতেই তাদেরকে আনুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদে সোপর্দ করা হয়। চেয়ারম্যান আরও জানান, তিনি প্রাথমিক অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মুচলেকা নিয়ে তাদের দুইজনকেই ছেড়ে দেন। কামরুজ্জামনের স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন নিজেও একজন পুলিশ কনস্টেবল। এ বিষয়ে জানতে আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার নাথের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হলেও তার স্ত্রীকে এ সংক্রান্ত কাগজ পত্র নিয়ে খুলনা মেট্রাপলিটন পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করতে বলেছি।