প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নৌ প্রটোকলে রুপনারায়ণ নদীকে যুক্ত করতে সম্মত বাংলাদেশ ও ভারত

আশিস গুপ্ত, নয়াদিল্লি: ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে রূপনারায়ণ নদীকে যুক্ত করতে সম্মত হয়েছে দুই দেশ। অভ্যন্তরীণ জলপথ পরিবহনের ক্ষেত্রে পারস্পরিক বোঝাপড়া বাড়াতে দুই দেশের ১৯তম স্ট্যান্ডিং কমিটির বৈঠকে ওই সম্মতি প্রকাশ করা হয়েছে।

বুধবার দিল্লিতে শুরু হয়েছে স্ট্যান্ডিং কমিটির বৈঠক। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে অভ্যন্তরীণ জলপথ ব্যবহার করে পণ্য আদান-প্রদানের সুযোগ বাড়ানোর বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা চলছে ওই বৈঠকে। বৃহস্পতিবারও বৈঠক চলবে।

প্রথম দিনের আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয়েছে গেঁওখালী ও কোলাঘাটের মধ্যে রূপনারায়ণ নদীকে প্রটোকল রুটের মধ্যে নিয়ে আসা হবে। সিদ্ধান্ত হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের কোলাঘাট এবং বাংলাদেশের চিলমারীকে নদী বন্দর হিসাবে উন্নত করা হবে। এই নদীপথে পণ্য পরিবহন চালু হলে, ভারত থেকে ফ্লাইং সিমেন্ট ও নির্মাণ সামগ্রী বাংলাদেশে কম খরচে নিয়ে যাওয়া যাবে।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আসামের বরাক নদীতে করিমগঞ্জের পাশাপাশি বদরপুরে এবং একইভাবে বাংলাদেশের আশুগঞ্জের পাশে ঘোড়াশালে বন্দর তৈরী করা হবে।
ভারতের প্রতিনিধিদলের পক্ষ থেকে বাংলাদেশকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা থেকে অসমের শিলচর পর্যন্ত জলপথ রুট প্রটোকলের আওতায় নিয়ে আসার জন্য।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয়, রাজস্ব বোর্ড, ডিজি (শিপিং) ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল। ভারতের পক্ষে ছিলেন জাহাজ, বিদেশ, স্বরাষ্ট্র ,উত্তর-পূর্ব উন্নয়ন মন্ত্রনালয় এবং অভ্যন্তরীণ জলপথ অথরিটির শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ