প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অল্পপুঁজিতে বোতলজাত আখের রসের উন্নতমানের ব্যবসা

মতিনুজ্জামান মিটু: দেশে এখন রয়েছে আখের রস বোতলজাত করে বাজারজাত করার প্রযুক্তি। এতে অল্পকিছু পূঁজিতে আখের রস বোতলজাত করার মাধ্যমে উন্নতমানের ব্যবসা’র সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউটের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও প্রকল্প পরিচালক ড. সমজিৎ কুমার পাল বলেন, সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডসহ অনেক দেশের মতোই বাংলাদেশেও এখন আখের রস বোতলজাত করে বাজারজাত করার প্রযুক্তি রয়েছে। বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানিরা এ প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেন।

তিনি বলেন, আখের রসের ভেষজগুণ, পুষ্টিমান এবং স্বাদের কারণে এর চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা অন্য যেকোনো কমল পানীয়ের চেয়ে অনেক বেশি। তাই অল্পকিছু পূঁজি বিনিয়োগ করে আখের রস বোতলজাত করার মাধ্যমে শুরু করা যেতে পারে উন্নতমানের ব্যবসা। ১০ফুট বাই ১০ফুটের দু’টি ঘরে মাড়াই মেশিনসহ সবধরণের যন্ত্রপাতি ও আনুসঙ্গিক খরচ মিটিয়ে এধরণের একটি শিল্প ইউনিট গড়ে তুলতে ১০ লাখ টাকার মতো লাগতে পারে। আখের যোগান স্বাভাবিক থাকলে দেশের ননমিল এলাকায় এধরণের শিল্প গড়ে তোলা যেতে পারে।

তিনি আরও বলেন, দেশে এধরণের ব্যবসা গড়ে উঠার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশে ক্যানের মাধ্যমে যে আখের রস বাজারজাত করা হয় তার স্বাদ খুব একটা ভাল নয়। আমাদের দেশে অনেক উন্নত মান ও স্বাদের আখের রস বোতলজাত বা ক্যানজাত করা সম্ভব হবে। যা দেশ-বিদেশে জনপ্রিয় হওয়ার অপার সম্ভাবনা রয়েছে। এতে অনেক কর্মসংস্থানের পাশাপাশি বোতলজাত বা ক্যানজাত আখের রস রপ্তানীর মাধ্যমে প্রচুর বৈদেশিক মূদ্রা অর্জন হবে। দেশের তরুণ শিক্ষিত যুবক এবং বড় উদ্যোক্তারা আখ চাষ সম্প্রসারণের মাধ্যমে এধরণের শিল্প গড়ে তুলতে পারেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত