প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতকে ৭৭ কোটি ডলারের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা-ব্যবস্থা সরবরাহ করবে ইসরায়েল

নূর মাজিদ : ভারতীয় নৌবাহিনীর সাতটি জাহাজে মোতায়েনের জন্য বারাক-৮ দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সরবরাহ করবে ইসরায়েল। গতকাল বুধবার ইসরায়েলের রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানি ইসরায়েল এরোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজ-আইএআই জানায়, এই লক্ষ্যে তারা ভারতের সঙ্গে ৭৭ কোটি ডলারের একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানি ভারত ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটেড-বেল-এর সঙ্গে তারা এই চুক্তি করেছে। চুক্তিটির আওতায় ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সরবরাহের পাশাপাশি ভারতকে প্রযুক্তিও হস্তান্তর করবে ইসরায়েল। এই চুক্তি মূলত লারস্যাম বা দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংক্রান্ত। যার প্রধান অনুষঙ্গ বারাক-৮ ক্ষেপণাস্ত্র।

ভারত এবং ইসরায়েল যৌথভাবে এই দূরপাল্লার প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির কাজ করেছে। বারাক-৮ ক্ষেপণাস্ত্র প্রায় শব্দগতির দ্বিগুণ গতিতে উড়ে গিয়ে শত্রুপক্ষের বিমান বা ক্ষেপণাস্ত্রকে ধ্বংস করতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্রের সুরক্ষা ব্যবস্থার প্রাথমিক ব্যবহারকারী ইসরায়েলি নৌবাহিনী। তবে ভারতের নৌবাহিনীর পাশাপাশি বিমান এবং সেনাবাহিনীর জন্যও বারাক-৮ মোতায়েন করার পরিকল্পনা করেছে ভারত।

আইএআই জানায়, সাম্প্রতিক চুক্তিটির মাধ্যমে ভারতের কাছে বিগত কয়েক বছরে বারাক-৮ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা বিক্রির পরিমাণ ৬শ কোটি ডলারে এসে দাঁড়িয়েছে। এই বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বলা হয়, ভারতের সঙ্গে আইএআই-এর পার্টনারশিপের সম্পর্ক অনেক বছর পুরোনো এবং দেশটির সঙ্গে যৌথভাবে গবেষণা ও উৎপাদন চুক্তির আওতায় এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করেছে ইসরায়েলি কোম্পানিটি। এই বিষয়ে আইএআই এর শীর্ষ নির্বাহী কর্মকর্তা নিমরড শেফার বলেন, আইএআই-এর জন্য ভারত একটি বৃহৎ ও সম্ভাবনাময় বাজার। তবে প্রতিযোগিতা মোকাবেলায় আমরা ভবিষ্যতে ভারতের প্রতিরক্ষা শিল্পের বাজারে নিজেদের অবস্থান আরও দৃঢ় করতে চাই। মিডল ইস্ট মনিটর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ