Skip to main content

জোড়া মাথার রাবেয়া-রোকাইয়ার পাশে প্রধানমন্ত্রী

স্বপ্না চক্রবর্তী : ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জোড়া মাথার শিশু রাবেয়া ও রোকাইয়াকে দেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি এ দুই শিশুর চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজ খবর নেন। বুধবার সকালে ‘শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট’র উদ্বোধন করতে এসে বহির্বিভাগে চিকিৎসারত রাবেয়া ও রোকাইয়ার চিকিৎসার দায়িত্ব নেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা জোড়া মাথার প্লাস্টিক মডেলের মাধ্যমে শিশু দু’টির চিকিৎসার পরিকল্পনা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। এ সময় শিশু দু’টির বাবা-মা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী তাদের বাবা-মায়ের সঙ্গেও কথা বলেন। চিকিৎসকরা জানান, শিশু দু’টিকে ধাপে ধাপে আলাদা করতে হবে। আলাদা করার অগ্রগতি হিসেবে ১৮ মাস বয়সে রাবেয়া ও রোকাইয়ার মাথায় যুক্ত রক্তনালী অপারেশন করে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, যাতে দু’জনের জন্য আলাদা রক্তনালী চালু হয়। প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ১৬ জুলাই পাবনা শহরের একটি ক্লিনিকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে স্কুল শিক্ষক রফিকুল ইসলাম ও তাসলিমা খাতুন দম্পতির ঘরে জন্ম নেয় জোড়া মাথার জমজ রাবেয়া-রোকাইয়া। এর আগে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। তার নামে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল সংলগ্ন চাঁনখারপুল এলাকায় ৫০০ শয্যাবিশিষ্ট এ ইনস্টিটিউটে বিশ্বের সর্বাধুনিক যন্ত্রপাতিসহ উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা থাকবে বলে জানা যায়।