প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংসদ নির্বাচনে নারীদের জন্য সরাসরি ভোট চাই : প্রকৌশলী শম্পা বসু

রফিক আহমেদ : সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম- এর সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু বলেছেন, আমরা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারীদের জন্য সরাসরি ভোট চাই। বর্তমানে জাতীয় সংসদে নারীদের জন্য সংরক্ষিত ৫০ আসন থাকলেও আমরা তা বৃদ্ধি করে ১০০ আসন করার দাবি জানাই। বুধবার রাজধানীর তোপখানা রোডস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে
একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা আমাদের দল বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল- বাসদ এবং সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম- এর পক্ষ থেকে জাতীয় সংসদে নারীদের জন্য ১০০ আসন সংরক্ষণের জন্য এবং সরাসরি নির্বাচনের দাবি জানাই। ইতোমধ্যে সরকার জাতীয় সংসদে মহিলাদের জন্য ৫০ আসন ২৫ বছরের জন্য সংরক্ষিত রেখেছে। আমরা নারীদের জন্য আসন সংরক্ষণের পক্ষে তবে আমরা চাই সরাসরি নির্বাচন এবং সরকার যে সরাসরি নির্বাচন না দিয়ে সিলেকশন পদ্ধতিতে ২৫ বছরের জন্য রেখে দিলো আমরা মনে করি নারীর ক্ষমতায়নকে এ সিদ্ধান্ত বাধাগ্রস্ত করবে।

তিনি বলেন, ৫০ আসন সিলেকশন পদ্ধতির মাধ্যমে সরকার তার দলীয় স্বার্থ হাসিল করে থাকে। দলীয় প্রধানের পছন্দ-অপছন্দের মাধ্যমে সংরক্ষিত নারী আসনে একজন নারী এমপি হন। তাতে জনগণের সাথে তার সম্পর্ক তৈরি হয় না, জনগণের প্রতি দায়বোধ তৈরি হয় না, সর্বোপরি তিনি জনগণের প্রতিনিধি বা নেতা হয়ে উঠতে পারেন না। দলীয় প্রধান বা সরকার প্রধানকে খুশি করতে পারলেই এমপি হওয়ার পর শুধু সরকার প্রধানকে খুশি করাই মনোভাব তৈরি হয়, যা নারীর প্রকৃত ক্ষমতায়নের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হ্যাঁ -না ভোট প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, না ভোট থাকা অত্যন্ত জরুরি। কোন আসনে যে কজন ব্যক্তি এমপি প্রার্থী হয়েছেন তাদের কাউকেও ওই এলাকার জনগণের কাছে যোগ্য নাও মনে হতে পারে। না ভোট থাকলে কোনো আসনে সব প্রার্থীই যদি অসৎ, লুটেরা, দুর্নীতিপরায়ন, কালো টাকার অধিকারী হন তাহলেও একজন না একজন এমন অযোগ্য প্রার্থীই জয়ী হবেন বা এমপি হবেন। কিন্তু ‘না’ ভোট থাকলে ওই আসনের জনগণ তাদের মতামত সঠিকভাবে তুলে ধরতে পারবেন এবং এতে দলগুলোও প্রার্থী নমিনেশন দেওয়ার ক্ষেত্রে এই বিষয়গুলো বিবেচনা করবে।

সম্পাদনা-মাহবুব আলম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ