প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফিক্সিং করে নিজের পায়ে কুড়াল মারেন ক্রিকেটাররা : সরফরাজ

ক্রিকফ্রেঞ্জি : বিশ্ব ক্রিকেটের বেশ কিছু দেশের বিরুদ্ধে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগ নতুনভাবে এনেছে আল জাজিরা। ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার মতো পাকিস্তান সুপার লিগে স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের নিষিদ্ধ হওয়ার পর জাতীয় দলের অন্যদের দিকেও উঠেছে সন্দেহের তীর।

কিন্তু পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ ফিক্সিয়ের ঘোর বিরোধিতা করে জানিয়েছেন, যারা অপরাধ জেনেও ফিক্সিং করে, তাঁরা নিজেদের বিপদ নিজেরাই ডেকে আনে। পাকিস্তান বোর্ড অনূর্ধ্ব-১৯ থেকে শুরু করে সকল পর্যায়ের ক্রিকেটারদের ফিক্সিং বিষয়ে সতর্ক করে আসছে।

কিন্তু তাতেও যদি তারা এই অপরাধের সাথে নিজেদের জড়িয়ে ফেলে তাহলে এর চেয়ে বড় বোকামি আর কিছুই হতে পারে না। ‘আমি ২০০৬ সাল থেকে পিসিবিকে কাছে থেকে দেখছি। আমি নিজেই অনূর্ধ্ব-১৯, পাকিস্তান ‘এ’ দলের ক্রিকেটারদের এই ব্যাপারে ক্লাস নিয়েছি।

‘যখন আমি পাকিস্তান দলে যোগ দিয়েছিলাম। ক্রিকেটারদের দায়িত্ববান হতে হবে। কোনটা ঠিক আর কোনটা ভুল, তারা সেটা জানে। তারপরেও যদি তারা ম্যাচ পাতায়, তাহলে সেটা নিজের পায়ে কুড়াল মারার সমান হবে,’ বলেছিলেন সরফরাজ।

কিছুদিন আগেই ম্যাচ পাতানোর দায়ে প্রায় ছয় বছর আগে নিষিদ্ধ হওয়া পাকিস্তান স্পিনার দানিশ কানেরিয়া স্বীকারোক্তিমূলক সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন। সেখানে কানেরিয়া বলেন, জুয়ারিকে তিনি প্রথমে ভক্ত ভেবেই ভুল করেছিলেন।

তাই সরফরাজও মনে করেন, ভক্ত হিসেবে জুয়াড়িরা কাছে আসে, কিন্তু এতে তো বাধা দেয়া যায় না মিডিয়ার সমালোচনার ভয়ে।

‘ভক্ত সেজেই তো তারা আসে। ওইসব জুয়াড়িদের সাথে কথা বলাটা দোষের নয়, কারণ ক্রিকেটাররা তো আর জানছে না ওরা জুয়াড়ি! অনেকেই এসে ছবি তুলতে চায়, তাদের সাথে ছবি না তুললে আবার আমাদেরই খারাপ দেখান হয় মিডিয়াতে!’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ