প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খালেদা জিয়াকেই প্রধানমন্ত্রী দেখতে চান তৃতীয় লিঙ্গের আপন

সাব্বির আহমেদ, সিলেট থেকে : কুমিল্লা থেকে ভোরে এসেছেন জহিরুল ইসলাম আপন। বিশোর্ধ আপন একটি সিএনজি করে দুয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে সিলেটের রেজিস্টারি মাঠে এসেছেন। সিএনজিতে থেকে নেমেই জোরেসোরে দাবি জানাচ্ছেন, অন্য কেউ নন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে আগামীর প্রধানমন্ত্রী দেখতে চান।

বুধবার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সিলেটের জনসভার মাঠে এসে আপনকে চিৎকার করতে দেখা যায়। বুকে তার ছোট্ট প্ল্যাকার্ড। যাতে লিখা ‘খালেদা জিয়ার সামাল নিন, ধানের শীষে ভোট দিন’। তৃতীয় লিঙ্গের আপন জানান, কুমিল্লার একটি সাংস্কৃতিক সংগঠনে তিনি নাচ গান করেন। তার মতে, খালেদা জিয়াই হবেন আগামীর প্রধানমন্ত্রী। পরে তারেক রহমান হবেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রনায়ক।

আপন সরকারের সমালোচনা করে বলেন, আমাদের অনেকেই সমাবেশে আসতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে জেলে রেখেছে। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানই স্বাধীনতার ঘোষক। বাংলার মাটিতে একদিন সকলের বিচার হবেই। তারেক রহমান দেশে আসবেই। অন্যদিকে খুব ছোট্ট জায়গায় নিয়ে রেজিস্টারী মাঠ। যেখানে বিকেলে বক্তব্য রাখবেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষস্থানীয় নেতারা। ছোট্ট মাঠ নিয়ে অনেকে নেতাকর্মীরাই ক্ষুব্ধ। তারা চেয়েছিলেন, সিলেটের সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা। কিন্তু প্রশাসন তাদের অনুমতি দেয়নি।

অন্যদিকে জনসভা মাঠে কিছুক্ষণ পরপর পুলিশের কর্মকর্তা টহল দিচ্ছেন। তারা জানিয়েছেন, জনসভার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই তাদের বাড়তি তৎপরতা। সভায় সভাপতিত্ব করবেন সিলেট মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। প্রধান অতিথি থাকবেন ড.কামাল হোসেন ও প্রধান বক্তা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। যারা ইতোমধ্যেই সিলেট শহরে রয়েছেন। ভোরে হয়রত শাহজালাল ও শাহ পরানের মাজার জিয়ারত করছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ