প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মধ্যরাতে তরুণীকে হেনস্তা: ২ পুলিশ সদস্য বরখাস্ত (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক : রাজধানীর রামপুরা টিভি সেন্টার এলাকায় পুলিশ চেকপোস্টে এক তরুণীর সঙ্গে পুলিশ সদস্যদের বাদানুবাদ ও আপত্তিকর কথার জেরে দুই পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সোমবার (২৩ অক্টোবর) রাত ২টার দিকে চেকপোস্টে পুলিশের সঙ্গে বাদানুবাদের ওই ভিডিও ভাইরাল হবার পর ঢাকা মহানগর পুলিশ সদর দফতর থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তদন্তে প্রাথমিকভাবে ঘটনাস্থলে উপস্থিত পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্টের (পিএমও) দুই পুলিশ সদস্যকে শনাক্ত করে তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

দুই পুলিশ সদস্যকে বরখাস্তের বিষয়টির ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ও ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মো. নাজমুল ইসলাম গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটি ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। বিভিন্ন ব্যক্তি ভিডিও শেয়ার করেছেন এবং হাজার হাজার মানুষ ওইসব ভিডিওতে পুলিশের বিরুদ্ধে নেতিবাচক মন্তব্য করছেন।

এদিকে মঙ্গলবার রাত রাত ৮টার দিকে ফেসবুকে ডাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ভেরিফাইড পেজে একটি বিবৃতি দেয়া দিয়ে বলা হয়েছিল, পুলিশ চেকপোস্টে সিএনজি অটোরিকশা আরোহী এক নারীর সঙ্গে পুলিশের বাদানুবাদের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বিষয়টি সম্পর্কে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের দৃষ্টি আকর্ষিত হয়েছে। ইতোমধ্যে ঘটনায় সংশ্লিষ্ট পুলিশ সদস্যদের সনাক্ত করা হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে।

ওই বিবৃতির কয়েক ঘন্টার মধ্যেই দুই পুলিশ সদস্যের বরখাস্তের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিতে বেশ কিছু আপত্তিকর কথা শোনা যাচ্ছে। ভিডিওটিতে তরুণী ও পুলিশ সদস্যদের কথোপকথনের কিছু অংশ এখানে তুলে দেওয়া হলো…

তরুণী : আপনি আমার সাথে এভাবে কথা বলছেন কেন?

পুলিশ : কীভাবে বলা হয়েছে?

তরুণী : এত ভাব মারেন কেন? মাইয়াগো দেখলে ব্যাগ চেক করেন।

পুলিশ : এই, আপনি কিন্তু এত বিশ্বসুন্দরী না।

তরুণী : সমস্যা কী আপনার?

পুলিশ : না, আপনে তো মনে করছেন, আপনে কী যেন হয়ে গেছেন। আপনাকে দেখে আমি মুগ্ধ হয়ে গেছি। আপনার সমস্যা কি?

তরুণী : সমস্যা লাইট সরান। আপনাদের সমস্যা কী?

পুলিশ : এটা আমাদের চেক পোস্ট, আমরা চেক করব।

তরুণী : তো চেক করেন না কেন, এত কথা বলেন কেন?

পুলিশ : আপনে এত কথা বলেন কেন? বেয়াদব মেয়ে। বাসা থেকে ভালো করে এয়া শেখায়নি? আপনাকে ভালো করে বাসা থেকে শিক্ষা দেয়নি?

তরুণী : আপনে বেয়াদব? আপনে আমাকে খারাপ মেয়ে কেন বললেন? এইটা পুলিশের বিহ্যাব (আচরণ) হইলো? ফিল্ডিং মারবেন কেন?

পুলিশ : আপনার সাথে কি ফিল্ডিং মারছি? এই আপনার সাথে কে ফিল্ডিং মারছে?

তরুণী : লাইট সরান, চোখে ধরছেন কেন? ব্যাগে মারেন লাইট, চেক করেন।

পুলিশ : এখন রাত কয়টা বাজে? আড়াইটা বাজে। একটা ভদ্র ফ্যামেলির মেয়েরা…

তরুণী : আমি সারারাত চলবো, আপনার সমস্যা?

পুলিশ : তো আপনে এভাবে অভদ্রর মতো কথা বলছেন কেন? বাসা থেকে আপনাকে ভদ্রতা শিখায়নি?

তরুণী : অভদ্রতো আপনে…

পুলিশ : বাসা কোথায়? কার মেয়ে আপনে? আপনে কার মেয়ে সেটা বলেন।

তরুণী : আমার ঠেকা পরে নাই।

পুলিশ : না, আপনে কোন মিনিস্টারের মেয়ে সেটা বলেন না। আপনে ব্যাগ খোলেন।

তরুণী : না, আপনারা খোলেন।

পুলিশ : না, না আমরা খুলব না তো। আপনার ব্যাগ আপনে দেখাবেন।

তরুণী : এতক্ষণ আমার টাইম নষ্ট করলেন…

পুলিশ : কেন, কেউ কি ওয়েট করতেছে?

তরুণী : কী হইছে? তোর বাপে ওয়েট করতেছে।

পুলিশ : বাসা হচ্ছে ডেমরা, আপনে ওই দিকে কোথায় যান?

তরুণী : হায় প্রশাসন, ভদ্রতা!

পুলিশ : সেটা আপনে কালকে দেখতে পারবেন। পুলিশ ভদ্র না অভদ্র, সেটা কালকে দেখতে পারবেন।

তরুণী : কী, বাল দেখব আমি।

পুলিশ : বাসা থেকে এইটা সেখাইয়া দিছে?

তরুণী :হ্যাঁ (রেগে )

পুলিশ : মানুষের সঙ্গে বাল-ছাল বলা শিখাই দিছে?

মেয়ে : অসভ্য, লাইটা নামান।

পুলিশ : ও তো পুরাভাবে অ্যাডিক্টেট, ওতো অ্যাডিক্টেট।

 

দোষটা পুলিশের নাকি মেয়েটার?

Posted by Robin Akram on Tuesday, October 23, 2018

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত