প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডিবি কার্যালয়ে রুটি ও ডাল খেয়েছেন মইনুল

সুশান্ত সাহা : গ্রেফতারের পরে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন  প্রথম রাত কাটিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের হাজতে। সে রাতে তাকে কোন খাবার দেয়া হয়নি। খাওয়ার কখা বললে তিনি জানান, আসম রবের বাসায় খেয়ে এসেছেন। মঙ্গলবার সকালে সাধারণ হাজতিদের জন্যে বরাদ্দ খাবার খান তিনি। সকালে নাস্তায় ছিল রুটি আর ডাল।

ডিএমপি’র ডিসি (গোয়েন্দা উত্তর) মশিউর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকালে তাকে সাধারণ খাবার দেয়া হয়েছে। রাতে হাজতে কোনো মশারি দেয়া হয়নি। সাধারণ হাজতিদের তা দেওয়া হয় না।

রাতে ব্যারিস্টার মইনুল কী খেয়েছেন, তা জানতে চাইলে ডিসি মশিউর রহমান জানান, রাতে রবের বাসায় খেয়ে বের হয়েছেন। সোমবার রাত সাড়ে ১০টার উত্তরায় আ স ম রবের বাসা থেকে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গোয়েন্দা কার্যালয়ে নিয়ে আসতে সাড়ে ১১ টা বাজে যায়। ততোক্ষণে ডিবির কেন্টিন বন্ধ হয়ে গেছে। পরে রাত ১২ টার দিকে ব্যারিস্টার মইনুলের স্বজনরা তার ওষুধ দিয়ে গেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে দুপুর ১২টা ৫৫ মিনিটে ব্যারিস্টার মইনুলকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে হাজির করা হয়। দুপুর সোয়া ১টার দিকে অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলামের আদালতে তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর উত্তরা থেকে মইনুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। রাত ১০টার দিকে ব্যারিস্টার মইনুলকে গ্রেপ্তারের পর ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। গ্রেপ্তার পর ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম জানান, মইনুলকে রংপুরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর মুখ্য হাকিমের আদালতে সোপর্দ করা হবে। আদালত অনুমতি দিলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি পুলিশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ