প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি সমাজে উধাহরণ হিসেবে থাকবে : মানবাধিকার কর্মীরা

শিমুল মাহমুদ: ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন গ্রেফতারে ঘটনায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রংপুরের নারীকর্মী ও প্রগতিশীল মানুষ। একই সঙ্গে সমাজে এমন বৃত্তশালী ব্যক্তির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি উধাহরণ হিসেবেও থাকবে বলে মনে করেন এ মানবাধিকার কর্মীরা।
মামলা বাদী ও মানবাধিকার কর্মী মিলি মায়া বলেন, একজন নারী সাংবাদিককে অকথ্য ভাষায় গালি দিয়েছে ব্যারিস্টার মইনুল। সেটাই আমার মনে খুব ব্যথার সৃষ্টি করেছে। আর সেজন্যই আমি মামলাটি করেছি। আমি চাই তার যেনো কঠোর থেকে কঠোরতর শাস্তি হয়।

মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) ৭১ টেলিভিশনের এক সাক্ষাতকারে তিনি এ কথা বলেন।

এরআগে রংপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফা ইয়াসমিন মুক্তার আদালত মামলাটি গ্রহন করে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে।

মামলার বিষয়ে রংপুর বার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক বলেন, ধারা ৫০০/৫০৬/৫০৯ এই মামলা গতকাল দাখিল করার পর, সেখানে বিজ্ঞ আদালত ডিপোজিশনের পর আমাদের নিবেদন ছিল তার বিরুদ্ধে যেনো গ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যু করা হয়। পরবর্তিতে বিজ্ঞ আদালত পরোয়ানা ইস্যু করে।

রংপুরের নারীকর্মী ও মানবাধিকার কর্মীরা বলেন, ব্যারিস্টার মইনুল গণতন্ত্র ও মত প্রকাশের কথা বলে থাকেন। কিন্তু তিনি নিজেই ঠিক বিপরীত কাজটায় করেছেন। আর এজন্যই তার শাস্তি হওয়া উচিত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ