প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বর্তমান সংকটের জন্য আওয়ামী লীগই দায়ী : এমাজউদ্দীন আহমেদ

শিমুল মাহমুদ : ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড.এমাজউদ্দীন আহমেদ বলেছেন, দেশের বর্তমান সংকটের জন্য আওয়ামী লীগই দায়ী। গত ৮-৯ বছরে প্রশাসন, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন সেক্টরে মেধার ভিত্তিতে কোনও কর্মকর্তা নিয়োগ হয়নি। ফলে সরকারি কর্মকর্তাদের ভুলেই গেছেন যে তারা কোনো দলের কর্মকর্তা না।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির সাবেক স্থায়ী কমিটির সদস্য মরহুম এম কে আনোয়ারের প্রথম স্মরণ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জনগণের কষ্টে অর্জিত অর্থ দিয়েই তাদের মাইনে দেয়া হয়। জনকল্যাণে তাদের সংশ্লিষ্ট থাকার কথা। এটা তারা ভুলে গেছেন। বর্তমান এই সংকট মোকাবিলায় নিজেদের ওপর আত্মবিশ্বাস নিয়ে সকলকে প্রস্তুত থাকতে হবে বলেও জানান ড. এমাজউদ্দীন।
সরকারের সমালোচনা করে তিনি আরো বলেন, এই সরকার সব জায়গায় ষড়যন্ত্রের কথা বলে। এমনকি ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকেও’ ষড়যন্ত্র বলা হচ্ছে।

আজকে রাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের দলীয় কাজে ব্যবহার করাটাই ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্রকে মুছে ফেলার জন্য জাতীয় পর্যায়ে একটি ঐক্য দরকার। ভাবা দরকার এখন জাতীয় পর্যায়ে যে ঐক্য সৃষ্টি হয়েছে এখানে আমার আপনার অবদান কতটুকু। কতটুকু অবদান রাখতে পেরেছি সেদিকে দৃষ্টি দিয়ে অন্য কারো সমালোচনা না করে আত্মসমালোচনা করা দরকার। একই সঙ্গে আমাদের প্রস্তত হওয়া দরকার।

সাবেক এই উপাচার্য আরও বলেন, রাষ্ট্র এবং সরকারকে একাকার করে ফেলা হয়েছে। রাষ্ট্র ও সরকারের মধ্যে যে পার্থক্য রয়েছে এটা ভুলে গেছে বর্তমান সরকার। এখন কোথাও রাষ্ট্রের সমালোচনা করা যায় না। স্বাধীন মত প্রকাশের সব দ্বার রুদ্ধ।
নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম এর উপদেষ্টা সাঈদ আহম্মদ আসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ স্মরণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সম্পাদিত : হুমায়ুন কবির খোকন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ