প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫মিনিটেই মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন !
চক্রের মূলহোতাসহ ১৫ সদস্য আটক

সুজন কৈরী : মোবাইল ফোনের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করার অভিযোগে রাজধানীর গুলিস্তান এলাকা থেকে সংঘবদ্ধ চক্রের ১৫ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৩। আটককৃতরা হলো- চক্রের মুল হোতা মো. মাসুদ লাকুরিয়া, মো. রিপন, মো. রাশেদ খান, মো. আনিস মোল্লা, মো. জাহিদুল ইসলাম, মো. পলক, মো. রাশেদুল ইসলাম, মো. নাইম সরদার, মো. স্বপন, মো. মোতালেব, মো. রানা হামিদ, মো. আব্দুল মান্নান, মো. মাসুদ রানা, মো. নাজিম ও মো. কামাল হোসেন।

সোমবার রাতে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে বিপুল সংখ্যক চোরাই মোবাইল ও আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করার বিভিন্ন সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব-৩-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. এমরানুল হাসান জানান, গুলিস্থান পাতাল মার্কেটের বিসমিল্লাহ টেলিকম থেকে মাসুদ লাকুরিয়াকে মোবাইলের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তনের সময় মোবাইল ও মোবাইলের বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গুলিস্থানের মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়াম মার্কেটের ১১ দোকানে অভিযান চালিয়ে আইফোন, স্যামস্যাং, অপ্পো, সনি, ভিবো, শাওমিসহ বিভিন্ন ব্রান্ডের ৫৩১টি মোবাইল, একটি ল্যাপটপ, দুইটি কম্পিউটার, আইএমইআই পরিবর্তনের ৬টি ডিভাইস জব্দ ও ১৪ জনকে আটক করা হয়।

র‌্যাব জানায়, গুলিস্তানের সংঘবদ্ধ এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে বিশেষ সফটওয়্যার দিয়ে মাত্র ৫ থেকে ৭ মিনিটেই চোরাই ও ছিনতাই হওয়া দামি মোবাইল ফোনের আইএমআইএ (ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি) নম্বর পরিবর্তন করে তা বাজারে বিক্রি করত। এছাড়া ফ্ল্যাশ ডিভাইস ব্যবহার করে যে কোনো মোবাইল আনলক করে, অপরাধী চক্রের কাছে তুলে দিত। চক্রের সদস্যরা ৫ থেকে ৬ মাস ধরে এ কাজ করছে। মোতালেব ও মান্নান নামে দুজন নিজস্ব লোক দিয়ে দোকানে মোবাইল ফোন বিক্রি করতো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ