প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১৫’শ কোটি ডলারের ইউএস বন্ড বিক্রি করল ভারত

রাশিদ রিয়াজ: চীনকে অনুসরণ করে এবার ১৫’শ কোটি ডলারের ইউএস বন্ড বিক্রি করল ভারত। চীনের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে গত ১৪ বছরের মধ্যে বেইজিং তৃতীয়বারের মত ৩ বিলিয়ন ডলার ইউএস ট্রেজারি বন্ড বিক্রি করে। রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া গত এপ্রিল থেকে ১৬.৩ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে ভারত। গত আগস্টে ইউএস ট্রেজারি বন্ডে ভারতের মজুদ নেমে আসে ১৪০ বিলিয়ন ডলারে। ইকোনমিক টাইমস

তবে ইকোনমিক টাইমস বলছে মার্কিন ডলারের তুলনায় ভারতীয় রুপির অব্যাহত দর পতনের সময় বিভিন্ন উদ্যোগের অংশ হিসেবে ওই মার্কিন বন্ড বিক্রি করা হয়। এর ফলে রুপির দর পতন কিছুটা রোধ পায়। অবশ্য বন্ড বিক্রির সঙ্গে সঙ্গে সুদের হার বৃদ্ধি করে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গত এপ্রিল থেকে ভারতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা অন্তত ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নেয়। এর ধকল সইতে না পেরে একই সময়ে রুপি ডলারের তুলনায় ১০ শতাংশ মূল্য হারায়। যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল লিঞ্চ আভাস দিয়ে বলছে মার্কিন-চীন বাণিজ্য যুদ্ধেও কারণে পরিস্থিতি আরো অবনতি হলে ভারতকে আরো ১০ থেকে ১৫ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করতে হতে পারে। গত মধ্য অক্টোবরে চীনের ৩ বিলিয়ন ডলারের ইউএস বন্ড বিক্রিকে ব্লুমবার্গ বড় ধরনের উদ্যোগ বলে অভিহিত করে।

ঝিউয়ান ওয়াং যিনি দিপব্লু গ্লোবাল ইনভেস্টমেন্ট’র সিনিয়র পোর্টফলিও ম্যানেজার, তিনি বলেন, বন্ড ইস্যু হচ্ছে চীনের ঋণ নেয়ার ক্ষমতা বা আস্থার প্রতীক। তবে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভ মুনচিন বলেছেন, এধরনের ইউএস ট্রেজারি বন্ড বিক্রিতে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। এর আগে মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট এক প্রতিবেদনে জানায়, রাশিয়া ৩৩.৮ বিলিয়ন ডলারের ইউএস ট্রেজারি বন্ড বিক্রি করেছে এবং এর ফলে দেশটি আর ৩৩তম বন্ড মালিকানায় নেই। গত বছর রাশিয়া ইউএস বন্ড মজুদ বৃদ্ধি করে ফলে এক বছর মার্চে তা ৭০ থেকে ডিসেম্বরে ৯০ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়ায়। সবচেয়ে বেশি ইউএস বন্ড কিনেছে চীন যার পরিমান রয়েছে ১.১৮ ট্রিলিয়ন এবং এর পরেই জাপানের রয়েছে ১.০৪ ট্রিলিয়ন ডলার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ