প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গ্রেফতার লঙ্কান কর্মকর্তা

স্পোর্টস ডেস্ক: সাম্প্রতিক সময়ে ক্রিকেটে ম্যাচ ফিক্সিং ও দুর্নীতি দমনে বেশ সক্রিয় ভূমিকা পালন করছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি ও এর সহযোগী সংস্থাগুলো। আইসিসির কড়া নজরদারি এখন রয়েছে শ্রীলঙ্কায়, যেখানে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ড।
সার্বক্ষণিক নজরদারিতে থাকায় শ্রীলঙ্কায় এখনো পর্যন্ত কোনো ম্যাচ পাতানোর ঘটনা ঘটেনি, তবে দুর্নীতি ঠিকই ধরা পড়েছে স্থানীয় পুলিশের রাডারে। যে কারণে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান অর্থ বিষয়ক কর্মকর্তা নান্দিকা দিশানায়েকেকে গ্রেফতা করেছে লঙ্কান পুলিশ।
নান্দিকার বিরুদ্ধে আনা হয়েছে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ। বছরের শুরুতে ঘরের মাঠে হওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে বিপুল পরিমাণে অর্থ আত্মসাৎ করেছেন নান্দিকা, এমনটাই জানা গিয়েছে প্রাথমিকভাবে।
পুলিশের মুখপাত্র নান্দিকাকে গ্রেফতারের পর সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘চলমান আনুষ্ঠানিক তদন্তের ধারাবাহিকতায় সিআইডি এ ঘটনার মূল হোতা নান্দিকা দিশানায়েকেকে গ্রেফতার করেছে। তিনি বর্তমানে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের অর্থ বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা।’

এ ঘটনার অভিযোগটা মূলত করা হয়েছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকেই। বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাই নান্দিকার বিরুদ্ধে প্রথম অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ করেন। যেখানে তিনি জানান প্রায় এক লক্ষ সাতাশি হাজার ডলারের হিসেবে গড়মিল রয়েছে।

পুলিশের মুখপাত্র বলেন, ‘২০১৩ সাল থেকে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের টিভি সম্প্রচার স্বত্ত্ব সনি নেটওয়ার্কের কাছে রয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সবশেষ সিরিজের সময় নান্দিকা সনি টিভির কাছে মূল চুক্তির ১৫ শতাংশ টাকা নিজের একাউন্টে জমা দেয়ার কথা বলেছিলেন। সে দফায় সনির পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। তবে চলতি ইংল্যান্ড সিরিজের চুক্তির ৫০ শতাংশ দাবি করার পরপরই ব্যাপারটি বোর্ডে জানায় সনি নেটওয়ার্ক কর্তৃপক্ষ।’

উল্লেখ্য, সপ্তাহখানেক আগেই আইসিসির নিয়ম ভঙ্গ করার অপরাধে দুটি গুরুতর অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে লঙ্কান কিংবদন্তি ক্রিকেটার সনৎ জয়াসুরিয়ার নামে।জাগোনিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ