প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জম্মু-কাশ্মীরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে রামায়ণ ও গীতা রাখা বাধ্যতামূলক করলো সরকার

আশিস গুপ্ত ,নয়াদিল্লি : জম্মু-কাশ্মীরের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সাধারণ পাঠাগারে ভগবৎ গীতা এবং রামায়ন রাখা বাধ্যতামূলক। এমনই নির্দেশিকা জারি করেছে জম্মু–কাশ্মীর সরকার। স্কুল শিক্ষা দফতর, উচ্চ শিক্ষা দফতর ও গ্রন্থাগার ও সংস্কৃতি দফতর স্থির করেছে, উর্দু অনুবাদে রামায়ণ ও গীতা কিনবে বিপুল পরিমাণে। জম্মু-কাশ্মীরের মতো একটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজ্যে সরকারের এই সিদ্ধান্তে শুরু হয়েছে বিতর্ক। রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্স ‘র নেতা ওমর আবদুল্লার অভিযোগ, অন্যান্য ধর্মকে অবহেলা করা হচ্ছে।

গত ৪ অক্টোবর জম্মু কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের উপদেষ্টা বি বি ব্যাসের নেতৃত্বে একটি প্রশাসনিক বৈঠক হয়। তখনই উর্দুতে গীতা ও রামায়ণ কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। ওমর আবদুল্লা বলেছেন, আমি মনে করি না সব স্কুল-কলেজ-লাইব্রেরিতে ধর্মীয় পুস্তক রাখার প্রয়োজন আছে। কিন্তু যদি রাখতেই হয়, একটিমাত্র ধর্মের গ্রন্থ রাখা হবে কেন?

২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী কাশ্মীরে ৬৮ শতাংশ বাসিন্দাই মুসলিম। সেই রাজ্যে বিজেপি শাসিত সরকারের এই তুঘলকি নির্দেশিকা কেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে একাধিক রাজনৈতিক দল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ