প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ট্রাম্প যতটা সম্ভব সৌদিকে রক্ষা করবে : ড. আলী রীয়াজ

জুয়েল খান : যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় স্টেট ইউনিভার্সিটির রাজনীতি ও সরকার বিভাগের অধ্যাপক ড. আলী রীয়াজ বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সৌদি সরকারের যে ১১০ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র চুক্তি হয়েছে তার ফলে জামাল খাসোগজি হত্যার বিষয়ে সৌদি আরবের প্রতি ট্রাম্প প্রশাসন কিছুটা কৈাশলী অবস্থান নিয়েছে।

এদিকে ইস্তাম্বুলের সৈৗদি দূতাবাসের ভেতরে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজিকে হত্যা করার অভিযোগ সৌদি সরকার স্বীকার করেছে। আর মার্কিন সিনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক বিভাগের উপকমিটির প্রধান বব করকার বলেছেন এই ঘটনার পেছনে কে আছে তা খুঁজে বের করতে যুক্তরাষ্ট্রকে নিজস্ব এবং বিশ্বাসযোগ্য তদন্ত করতে হবে।

এ বিষয়ে ড. আলী রীয়াজ বলেন, সৌদি সরকারের সাথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যে অস্ত্র চুক্তি হয়েছে সেটা ১০ বছরের জন্য। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে এই অস্ত্র তৈরি হবে। এবং অনেক মানুষের কর্মসংস্থান হবে। যার ফলে সৌদি এবং যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক হুমকির মুথে পড়তে পারে। তাই ট্রাম্প প্রসাশন কিছুটা কৌশলী অবস্থান নিয়েছে। ডোনাল ট্রাম্প তার দেশের ভোটারদের বোঝাতে চেষ্টা করছেন যে তারা যদি সৌদি সরকারের উপর চাপ প্রয়োগ করে তাহলে সৈদি অস্ত্রচুক্তি বেরিয়ে যাবে। আর এর ফলে অনেক মানুষ বেকার হয়ে যাবে। এতে ভোটাররা যাতে তাদের জনপ্রতিনিধিদের উপর চাপ প্রয়োগ করে। এবং জনপ্রতিনিধিরা যাতে ট্রাম্পকে সৌদি সরকারের উপর নমনীয় হতে সহায়তা করে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসম্যানরা এখন পর্যন্ত খাসোগজির বিষয়ে শক্ত অবস্থানে আছে। কংগ্রেসম্যানরা প্রকৃত তথ্য উদঘাটনের উপর জোর দিচ্ছে। এর ফলে প্রেসিডেন্ট এবং কংগ্রেসম্যানদের মধ্যে পরিষ্কার মতপার্থক্য দেখা দিয়েছে। আর যদি এভাবে চলতে থাকে তাহলে কংগ্রেসম্যানরা ম্যাগনেট্সকি অ্যাক্ট ব্যবহার করতে পারে যা প্রেসিডেন্টকে চাপে ফেলবে। সূত্র: বিবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ