Skip to main content

জন্মদিনে গুগল ডুডলে কবি শামসুর রাহমান

ফাহিম ফয়সাল : বাংলাদেশ ও বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের জন্মদিন উপলক্ষে ডুডলে পরিবর্তনে এনেছে সার্চ জায়ান্ট গুগল। গুগলের এই ডুডলে কবি শামসুর রহমানের একটি স্কেচ রাখা হয়েছে। ২৩ অক্টোবর, মঙ্গলবার শামসুর রাহমানের ৮৯তম জন্মদিন উপলক্ষে গুগলের এই ডুডলে এই স্ক্যাচ তৈরি করা হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে গুগলে (www.google.com) গেলে কিংবা সরাসরি (www.google.com.bd) ঠিকানায় ঢুকলেই দেখা যাবে বিশেষ ডুডলটি। এতে দেখা যাচ্ছে- সবুজ পাঞ্জাবি পরা শুভ্র চুলের শামসুর রাহমান লেখালেখি করছেন। এমনকি বেশিরভাগ সময়ে ডান হাতে ঘড়ি পরার অভ্যাসটিও ফুটিয়ে তুলেছে তারা। আর চারপাশে দারুণ আবহ দিয়ে সাজানো হয়েছে ইংরেজি গুগল লেখাটি। এদিকে কবির জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে বাংলা একাডেমি মঙ্গলবার বিকেলে একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানে একক বক্তৃতা করবেন শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক রফিকউল্লাহ খান। সভাপতিত্ব করবেন কবি আসাদ চৌধুরী। ঢাকার মাহুতটুলিতে ১৯২৯ সালের এদিনে কবি শামসুর রাহমান জন্মগ্রহণ করেন। তার পৈতৃক বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার পাড়াতলী গ্রামে। কবির বাবার নাম মুখলেসুর রহমান চৌধুরী, মায়ের নাম আমেনা বেগম। আধুনিক বাংলা কাব্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের পড়াশোনায় হাতেখড়ি পোগোজ স্কুলে। ঢাকা নগরেই বেড়ে ওঠেন তিনি। নাগরিক কষ্ট, দুঃখ-সুখ তার কবিতায় বিশেষভাবে উঠে এসেছে। জীবনের সত্য-সুন্দরকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে এই কবি ছিলেন অনন্য। পাশাপাশি বাঙালির সব আন্দোলন-সংগ্রামের গৌরবদীপ্ত অধ্যায় ফিরে ফিরে এসেছে তার কবিতায়। তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘প্রথম গান দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে’ প্রকাশিত হয়েছিল ১৯৬০ সালে। তার ৬০টি কাব্যগ্রন্থসহ প্রকাশিত গ্রন্থ শতাধিক। দৈনিক বাংলার সম্পাদক হিসেবে অনেক দিন কাজ করেছেন তিনি। তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কার (১৯৬৯), একুশে পদক (১৯৭৭) এবং স্বাধীনতা পদকসহ (১৯৯১) দেশ-বিদেশের অনেক পুরস্কার অর্জন করেন। ২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট মারা যান তিনি।

অন্যান্য সংবাদ