প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন : মন্ত্রিসভা ছোট করলে কাকে বাদ দেব?

আবুল বাশার নূরু : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এবার মন্ত্রিসভার আকার কমানো নাও হতে পারে বলে ইংগিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, বর্তমান মন্ত্রিসভায় ‘সব দলের’ প্রতিনিধিই আছেন। আর নির্বাচনকালীন সরকারের আকার ছোট করা হলে উন্নয়ন প্রকল্পের বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত হতে পারে। মন্ত্রিসভা ছোট করলে কাকে বাদ দেব? এমন প্রশ্নও করেন প্রধানমন্ত্রী।

সোমবার গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী তার এই ভাবনার কথা তুলে ধরেন।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা বলে আসছিলেন, ২০১৩ সালের মত এবারও ভোটের আগে ‘ছোট আকারের নির্বাচনকালীন’ সরকার গঠন করা হবে। চলতি বছরের শুরুতে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নিজেও তেমনই আভাস দিয়েছিলেন।

দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চান, মন্ত্রিসভা ছোট করে নির্বাচনকালীন সরকার এবার কখন হবে এবং তার ধরন কেমন হবে। উত্তর দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন করেন, ছোট না করলে কোনো অসুবিধা আছে কি না। নাঈমুল ইসলাম খান তখন বলেন, সংবিধান অনুযায়ী কোনো সমস্যা নেই। প্রধানমন্ত্রী তখন বলেন, যুক্তরাজ্যের মত যেসব দেশে সংসদীয় গণতন্ত্র আছে, কোথাও নির্বাচনের সময় মন্ত্রিসভায় পরিবর্তন আনা হয় না।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে মন্ত্রিসভা কেন পুনর্গঠন করা হয়েছিল, সে বিষয়টি ব্যাখ্যা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সে সময় বিরোধী দলে থাকা বিএনপি নির্বাচনে আসতে রাজি হচ্ছিল না বলে তখন তাদের নির্বাচনকালীন সরকারে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তারা যে মন্ত্রণালয় চায়, সেই মন্ত্রণালয় দেওয়া হবে বলেছিলাম। তারা যখন আসেনি, তখন বিভিন্ন দলগুলো নিয়ে ছোট মন্ত্রিসভা গঠন করা হয়েছিল। আর এবারের পরিস্থিতি বর্ণনা করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা (দশম সংসদ নির্বাচনে) মেজরিটি পাওয়া স্বত্ত্বেও প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলো থেকে মন্ত্রিসভা গঠন করেছি। এই মন্ত্রিসভায় জনগণের প্রতিনিধি যারা, তারা আছেন। যেহেতু সব দলের প্রতিনিধি আছে, জানি না এটাকে ছোট করার দরকার আছে কিনা। কাটছাট করা হবে কিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মন্ত্রিসভা ছোট করা হলে একজনকে কয়েকটা মন্ত্রণালয় চালাতে হবে। সেক্ষেত্রে কোনো কোনো উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ দুই তিন মাসের জন্য থমকে যেতে পারে। এ বিষয়গুলোও ভাবতে হবে। তিনি বলেন, যদি ডিমান্ড করে অপজিশন, তাহলে করব। আর না হলে কিছু করার নাই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ