প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নারায়ণগঞ্জে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিক- পুলিশ সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

মনজুর আহমেদ অনিক,নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে বকেয়া বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবিতে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেছে রফতানিমুখী একটি গার্মেন্টসের শ্রমিকদের। এতে বাধা দিলে পুলিশ ও শ্রমিকদের মধ্যে ব্যাপক ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশসহ অর্ধশত শ্রমিক আহত হয়েছেন। আহত শ্রমিকদের ভিবিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ সোমবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সিদ্ধিরগঞ্জ আদমজী ইপিজেডের প্রধান ফটকের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এসময় নারায়ণগঞ্জ-ডেমরা সড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। চরমর্দূভোগে পড়ে সাধারণ মানুষ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা তাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সড়ক অবরোধ করে অর্ধশতাধিক গাড়ি ভাংচুর করে। একটি কাভার্ডভ্যানে আগুন ধরিয়ে দেন তারা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে ও শ্রমিকদের ওপর লাঠিপেটা করেন। এতে তিন পুলিশ সদস্যসহ আহত হন অর্ধশত শ্রমিক।

সেখান থেকে সাতজনকে আটকের অভিযোগ করেছেন শ্রমিকরা। আহত শ্রমিকদের বিভিন্ন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ইতিপূর্বে এ বকেয়া বেতন, ছুটি ও ফান্ডের টাকা পরিশোধ না করায় এবং শ্রমিকদের না জানিয়ে কারখানা বন্ধের নোটিশ দেওয়ায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ প্রদর্শণ করেছিলেন।সোমবার তাদের বকেয়া পরিশোধের কথা ছিল বলে জানান শ্রমিকরা।

বিক্ষোভকারী পোশাক শ্রমিকদের অভিযোগ, সোয়াদ ফ্যাশনে সাড়ে তিন হাজার শ্রমিক কাজ করছে। পাঁচ থেকে ছয় মাস ধরে ঠিকমতো বেতন পরিশোধ করছে না কারখানা কর্তৃপক্ষ। সেইসঙ্গে বোনাস, ছুটি ও রিজার্ভ ফান্ডের টাকাও দেওয়া হয়নি। এ অবস্থায় এসব পোসাক শ্রমিকরা বাসা ভাড়াসহ সংসার চালানো নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। এর আগে ২২ সেপ্টেম্বর বকেয়া বেতন, ছুটি ও ফান্ডের টাকা পরিশোধ না করায় এবং শ্রমিকদের না জানিয়ে কারখানা বন্ধের নোটিশ দেওয়ায় বিক্ষুব্ধ হয়ে তারা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শণ করেন।

নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের এসপি জাহিদুর রহমান জানান, শ্রমিকরা অবস্থান নিয়ে আছে, পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে। কোনো শ্রমিককে আটক করা হয়নি। তাদের বুঝিয়ে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ