প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্লাকে টিকিট বিক্রি সিনেমার শুভ লক্ষণ!

মহিব আল হাসান : একটা সময় ঢাকাই সিনেমার জয়-জয়কার ছিল। সেসময় হলে বসে সিনেমা দেখার জন্য টিকিট পেত না। সিনেমার টিকিট বিক্রি হত ব্লাকে। সেময় সিমেনা হলে সিনেমার টিকিট যাতে ব্লাকে বিক্রি না হয় সেজন্য আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাহায্য নেওয়া হতো। হল কর্তৃপক্ষও নিজস্ব প্রতিরোধ ব্যবস্থা রাখতেন। টিকেট কালোবাজারীদেরকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করার ছবিও পত্র-পত্রিকায় ছাপা হতো। অথচ সেই টিকেট কালোবাজারী ব্যবস্থারই প্রশংসা করা হচ্ছে।

সিনেমার সাথে সংশ্লিষ্টরা ব্যক্তিরা ব্লাকে টিকিট বিক্রি করার প্রশংসা করছেন। তারা বলছেন এখনকার সময়ে যদি এমন হয় তাহলে সেটা সিনেমার শুভ লক্ষণ।

গতকাল ঢাকার অভিসার সিনেমা হলে গিয়ে দেখা যায় ব্লাকে টিকিট বিক্রি করছেন কয়েজন ব্যক্তি। হলের পাশে জটলা বেঁধে আছেন দর্শকরা। এই হলে চলছে গত সপ্তাহে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘নায়ক’। সিনেমাটি দেখতে এসে টিকিট না পেয়ে দর্শকরা হতাশ হয়ে ফিরেও গেছেন।

যাত্রবাড়ী থেকে সিনেমা দেখতে আসা কবিরুল আনোয়ার বলেন, ‘অনেকের মুখে সিনেমাটির কথা ভালো শুনে দেখতে আসলাম। কিন্তু হলে এসে টিকিট পাচ্ছি না। হলের কর্মকর্তারা বলছেন আসন অনুযায়ী শো শুরু হওয়ার নির্ধারিত সময়ের আগে টিকিট শেষ হয়ে গেছে।

হলের কর্মতাদের প্রতি অভিযোগ এনে বলেন, দর্শক সংখ্যা বেশি হওয়ায় তারা টিকিট ব্লাকে বিক্রি করছেন। কাউন্টারে টিকিট বিক্রি বন্ধ করে কয়েকজন দলবদ্ধ হয়ে চড়া দামে টিকিট বিক্রি হচ্ছে করছে।

অভিসার সিনেমা হলের কর্মকর্তা আনোয়ার বলেন, ‘এখন সিনেমার অবস্থা খুবই খারাপ। সিনেমা দেখতে দর্শক আসতে চায় না। এই শো হাউসফুল হওয়াতে টিকিট বিক্রি বন্ধ করা হয়েছে। কারণ আমাদের আসন অনুযায়ী টিকিট বিক্রি শেষ। বাহিরে যারা টিকিট বিক্রি করছেন তারাই আর কয়টা টিকিট কিনে বিক্রি করবেন। তারা নাম মাত্র টিকিট কিনে তবে কয়টায় আর বিক্রি হবে। এরকম দুই একটি শোতে দুই একটি টিকেটের বেলায় হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ