প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘দেশ ও এলাকার স্বার্থে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে’

শ.ম.গফুর,উখয়িাউখিয়া(কক্সবাজার): বালুখালী ক্যাম্প ১৭ তে নির্মাণাধীন জেলা প্রশাসকের সমন্বয় কেন্দ্রের অগ্রগতি দেখতে এসে চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আব্দুল মান্নান বলেন, যেকোন পরিস্থিতিতে দেশ ও এলাকার স্বার্থে ক্যাম্পে আইনশৃংলা পরিস্থিতি অবনতি হতে দেওয়া যাবে না। সেজন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের ব্যবহার করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

রোববার দুপুর দুইটার দিকে নির্মাণাধীন জেলা প্রশাসকের সমন্বয় কেন্দ্রের উন্নয়ন কার্যক্রম তদারকি শেষে আলোচনা সভায় তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণের ব্যাপারে এনজিওদের সাথে সমন্বয় করতে হবে। যাতে উভয়ের মধ্যে কোন প্রকার ব্যতিক্রম না ঘটে। ত্রাণসামগ্রী বিতরণের ব্যাপারে স্বচ্ছতা বজায় রাখার জন্য তিনি স্থানীয় প্রশাসনকে নিয়মিত মনিটরিং করার নির্দেশ দিয়ে বলেন, বিকাল ৫ টার পরে বহিরাগত কেউ যেন ক্যাম্পে প্রবেশ করতে না পারে সেদিকেও নজর রাখার নির্দেশ দেন এবং বলেন, রাতের বেলায় যাতে কোন এনজিও সংস্থা ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করতে না পারে সে ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনকে কঠোর নজরদারি রাখতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও পূর্ণবাসন কমিশনার শামশুদ্দোজা নয়ন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভুমি) একরামুল ছিদ্দিক, বালুখালী ১৭ এর ক্যাম্প ইনচার্জ এএস এম ওবাইদুল্লাহ, বালুখালী ১৪ এর ক্যাম্প ইনচার্জ শামীমুল হক পাবেল, ব্র্যাকের জেলা সমন্বয়কারী অজিৎ নন্দিসহ বিভিন্ন ক্যাম্পের ক্যাম্প ইনচার্জ ও এনজিও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, বালুখালী ক্যাম্প ১৭ এর মধ্যভাগে নির্মাণাধীন জেলা প্রশাসকের একটি সমন্বয় কেন্দ্র গত ৩ মাস আগে বিভাগীয় কমিশনার উদ্ধোধন করেন। ওই সম্মেলন কেন্দ্রে রোহিঙ্গা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সেমিনার, আলোচনা, সভাসমাবেশ করার জন্য মূলত এ সমন্বয় কেন্দ্রটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ